বাগমারায় দুই হাজার বানভাসী মানুষ পেলো ত্রাণ

আপডেট: আগস্ট ১৯, ২০১৭, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি


বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন সাংসদ এনামুল হক-সোনার দেশ

বাগমরার বন্যাকবলিত সোনাডাঙ্গা ইউনিয়নের চারটি গ্রামের দুইহাজার মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে বাগমারার সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক ব্যক্তিগতভাবে এই ত্রাণ বিতরণ করেন। বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন শেষে এলাকার মানুষের দুদর্শার কথা চিন্তা করে তিনি এ উদ্যোগে গ্রহণ করেন।
গতকাল বিকেলে সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে যান। তিনি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ও ঘরবাড়ি হারানো মানুষের দুর্দশা দেখে সরকারি ত্রাণের আশা না করে ব্যক্তিগতভাবে তাদের সাহায্য করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তিনি এসময় দলীয় নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় বানভাসীদেরে চিড়া, গুড়, খাবার স্যালাইন, চাল, ডাল, তেল, পানি বিশুদ্ধ করণ ট্যাবলেটসহ বিভিন্ন প্রকার ওষুধ বিতরণ করেন। তিনি বানখাসীদের উদ্দেশে বলেন, বাগমারায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তরা সরকারি সাহায্য না পেলেও আমি নিজে তাদের সাহায্য করবো। বন্যাকবলিত এলাকার একজন মানুষও খাদ্য, চিকিৎসা, ওষুধের অভাবের মারা যাবে না। তিনি আরো বলেন, বন্যাকবলিত কৃষক, ব্যবসায়ীসহ সকলস্তরের মানুষের তালিকা করে তাদের যথাসাধ্য ক্ষতিপুরণের চেষ্টা করা হবে।
ত্রাণ বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহীর জেলা প্রশাসক হেলাল মাহমুদ শরীফ, বাগমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিউল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অনিল কুমার সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মতিউর রহমান, ভাবানীগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আবুল, সিরাজ উদ্দিন সুরুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন মাস্টার, সোনাডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজহারুল হক, ইউপির সাধারণ সম্পাদক কাঞ্চন রায়, কাচারী কোয়ালিপাড়া ইউপির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, সহদপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, সহপ্রচার সম্পাদক ফরহাদ হোসেন মজনু, জেলা পরিষদের সদস্য মাহমুদুর রহমান রেজাসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেবৃবৃন্দ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ