বাগমারায় পরকিয়ার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, গ্রেফতার ১

আপডেট: এপ্রিল ১০, ২০২১, ৯:১৩ অপরাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি:


রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউনিয়নে পরকিয়ার জেরে আনিছার রহমান নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।
শুক্রবার দিবাগত রাত ১১টার সময় কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয় বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় ওই রাতেই শাকিল (১৮) নামের ১জন কে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের একডালা (সমষপাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
জানা যায়, উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের একডালা (সমষপাড়া) গ্রামের জনৈক নারীর সাথে দীর্ঘ দিন যাবৎ পরকিয়ার অবৈধ সম্পর্কে লিপ্ত ছিলো একই গ্রামের শফি সরদারের বড় ছেলে আনিছার সরদার।
ওই গ্রামের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যাক্তি সাংবাদিকদের জানান, জনৈক নারী ও আনিছার সরদারের অবৈধ সম্পর্কের কথা গ্রামের অনেকের জানা ছিলো। শুক্রবার রাতে জনৈক ওই নারীর বাড়ির পাশের মাঠে চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় আনিছার মাটিতে পড়ে আছে। এসময় তার শরীরে একাধিক কোপের ক্ষত ও ডান পায়ের রগ কাটা। প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হচ্ছিলো।
আহত আনিছার কে বারবার বলতে শুনেছি একই গ্রামের মৃত সবদুল প্রামাণিকের ছেলে রহমান প্রামাণিক ও তার ২য় স্ত্রীর ছেলে শাকিল সহ অন্তত ৪জন তার উপর হামলা চালিয়েছে। তবে বাঁকি দুজন কে সে চিনতে পারেনি বলে জানায়।
ঘটনার পর আহত আনিছারের পরিবারের সদস্যরা এসে আশংকাজনক অবস্থায় বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতেই রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
আহত আনিছার রহমানের ছোট ভাই আশরাফুল ইসলাম সকালে মুঠোফোনে বলেন, আমি আমার আহত ভাই কে এখন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আছি। তার অবস্থা এখনো আশঙ্কাজনক। দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।
এ ব্যাপারে তাহেরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই আব্দুর রাজ্জাক জানান, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই এবং শাকিলের নানা বাড়ি থেকে রাতেই তাকে আটক করি। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।
সকালে আহত আনিছারের মা বাদি হয়ে ৩জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন।