বাগমারায় লক্ষাধিক টাকার মাছ ছিনতাইয়ের অভিযোগ

আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০১৬, ১২:২৫ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি
বাগমারার দ্বীপপুর ইউনিয়নের খাপুর গ্রামে ভটভটি (নছিমন) আটকিয়ে মাছ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মাছ ছিনতাইকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় মাছচাষি তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাও নিতে পারছেন না। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় বাগমারা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে মাছচাষি আবদুর রাজ্জাক এমন অভিযোগ উত্থাপন করেন।
মাছচাষি আবদুর রাজ্জাক অভিযোগ করে বলেন, গতকাল দ্বীপপুর ইউনিয়নের হাসানপুর বিলে বিভিন্ন প্রজাতীর ৬ থেকে ৭শ কেজি মাছ ধরে ভটভটি (নছিমন) যোগে ভবানীগঞ্জ আড়তে বিক্রির জন্য আসছিলেন। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মাছ ভর্তি ভটভটি (নছিমন) গাড়িটি দ্বীপপুর ইউনিয়নের খাপুর মোড়ে আসলে এলাকার কিছু চিহ্নিত দুস্কৃতকারীরা ভটভটির গতিরোধ করে। ওই সময় ৩০/৪০ জন দুস্কৃতকারী ভটভটি থেকে মাছগুলো লুট করে নিয়ে যায়। এসময় মাছচাষি আবদুর রাজ্জাক ও আবুল কালাম আজাদ বাঁধা দিতে গেলে দুস্কৃতকারীরা তাদেরকে হত্যার হুমকি দেয়। দুস্কৃতকারীরা মাছগুলো লুট করে চলে গেলে মাছের মালিক আবদুর রাজ্জাক ও আবুল কালাম আজাদ খালী গাড়ি নিয়ে ভবানীগঞ্জ বাজারে চলে আসেন। ওই ঘটনার পর থেকেই মাছের মালিক আবদুর রাজ্জাক ও আবুল কালাম আজাদ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন।
তিনি আরো বলেন, মাছ ছিনতাইয়ের বিষয়টি প্রশাসন ও সাংবাদিকদের জানালে তোদের খবর করা হবে বলে ভয় দেখিয়ে দেয়। এই ভয়ে আমরা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি। ভটভটিতে প্রায় লক্ষাধিক টাকার মাছ ছিলো। বিষয়টি নিয়ে ভয়ে প্রশাসনের আশ্রয় নিতে পারে নি বলে তারা জানান বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে ওই সকল ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণেরও জোর দাবি জানান তারা।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি তদন্ত আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, এ ব্যাপারে কেউ থানায় লিখিত অভিযোগ করে নি। বিষয়টির খোঁজ খবর নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ