বাগমারায় সংঘর্ষে আহত ২০

আপডেট: এপ্রিল ২২, ২০১৭, ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি


রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার গনিপুর ইউনিয়নের শেখপাড়া গ্রামে গতকাল শুক্রবার পানবরজ ভেঙে জোরপূর্বক রাস্তা নির্মাণে বাঁধা দেয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে পরেশ উদ্দীন মন্ডল (৬৫) ও সাহেরা বেগমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল ও অন্যদের বাগমারা হাসপাতালে চিকিৎসার জণ্য ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার লাউপাড়া গ্রামের পরেশ উদ্দীন মন্ডলের পানবরজ ভেঙে একই উপজেলার গনিপুর গ্রামের মালাবক্স দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র ও ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পরেশ উদ্দীন মন্ডল তার ছেলেদের নিয়ে রাস্তা নির্মানে বাঁধা দিলে মালাবক্সের ভাড়া করা সন্ত্রাসী বাহিনী দেশিয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পরেশ উদ্দীনের বাড়ির লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা তাদের উপরও হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। ভাড়া করা সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত সাবদুল আলী (৫৫), দুলাল হোসেন (৩২), জালাল উদ্দীন (২৮), হাফিজা বেগমসহ ১৪ জনকে বাগমারা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বাগমারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত সাবদুল আলী মন্ডল অভিযোগ করে বলেন, তারা অন্যায়ভাবে আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি জবর দখল করে রাস্তা নির্মাণের পায়তারা করছে। তাদের রাস্তা নির্মাণে বাঁধা দিতে গেলে ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে আমাদেরকে কুপিয়ে জখম করে। আমি ওই সকল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানিয়েছি।
এ ব্যাপারে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাছিম আহম্মেদ জানান, ওই এলাকার পরিস্থিতি পুলিশের অনুকূলে রয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।