বাগমারায় সৎ মাকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

আপডেট: মার্চ ১০, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি



রাজশাহীর বাগমারার শুভডাঙ্গা ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামে দুই ছেলের বিরুদ্ধে সৎ মাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সৈয়দপুর গ্রামের দিজেন প্রামানিকের প্রথম স্ত্রী দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে প্রায় ৬ বছর আগে মারা যায়। প্রথম স্ত্রীর মৃত্যুর ৬ মাস পর দিজেন প্রামানিক আত্রাই উপজেলার কোনাঘাটের নিপেন্দ্রনাথ দাসের মেয়ে জোসনাকে (৩৫) বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে আগের পক্ষের দুই ছেলে বাবা দিজেন ও সৎ মা জোসনাকে বিভিন্ন সময় হত্যার হুমকি প্রদান করে আসছে। এরই জের ধরে গত বুধবার বিকালে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে লাঠিসোটা দিয়ে দুই ছেলে মিলে বাড়ির দরজা বন্ধ করে এলোপাতাড়ি মারপিট করে মুমূর্ষু অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। কেউ যদি তাকে চিকিৎসা করতে নিয়ে যায় তাহলে তার খবর আছে বলেও হুমকি প্রদান করে। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় জোসনাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
আহত জোসনার স্বামী দিজেন প্রামানিক জানান, মচমইল ডিগ্রি কলেজ পড়––য়া দুই ছেলে রতন কুমার ও অসিম কুমার তারা দুই ভাই মিলে বার বার হত্যার হুমকি প্রদান করে আসছিল। সেই ছেলেরা দ্বিতীয় স্ত্রী জোসনাকে তালাক দিতে বলার পরও তালাক না দেয়ার কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি করে তারা। দিজেন জানান, এ ঘটনায় বাগমারা থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এ ব্যাপারে বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ জানান, এ ঘটনায় এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ আসে নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ