বাগমারা থেকে নিখোঁজ যুবক সিলেটে উদ্ধার

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৭, ১:০১ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি


রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে নিখোঁজ যুবক জাহাঙ্গীর আলমকে (২৩) উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। জাহাঙ্গীর আলমকে আনার জন্য সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে বাগমারা থানার পুলিশের একটি দল। বাগমারায় আনার পর তার কাছ থেকে নিখোঁজের আসল রহস্য পাওয়া যাবে বলে বাগমারা থানার ওসি তদন্ত আসাদুজ্জামান আসাদ জানিয়েছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের বালিয়া সাদোপাড়া গ্রামের হবিবর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম তার অসুস্থ বড় বাবা (জ্যাঠ্য) আবদুল হামিদকে বাগমারা স্বাস্থ্য কমেপ্লক্সে দেখতে গিয়ে নিখোঁজ হন। হাসপাতাল থেকে নিখোঁজের পর পরই তার মুঠোফোনটি বন্ধ দেখা গেলে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে উদ্বিগ্ন সৃষ্টি হয়। অনেক খোঁজাখুজিঁর পরে জাহাঙ্গীর আলমকে না পেয়ে ওই দিন রাতেই তার বাবা হবিবর রহমান বাদী হয়ে বাগমারা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এছাড়াও নিখোঁজ জাহাঙ্গীর আলমের বাবা হবিবর রহমান তার ছেলেকে অপহরণ করা হয়েছে মর্মে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন।
বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় নিখোঁজ যুবক জাহাঙ্গীর আলমের ছবিসহ সংবাদ প্রকাশ হয়। পুলিশ অনুসন্ধান চালিয়ে গোপনে জানতে পারেন নিখোঁজ জাহাঙ্গীর আলম সিলেটে অবস্থান করছেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বাগমারা থানার পুলিশের একটি দল জাহাঙ্গীর আলমকে উদ্ধার করতে সিলেটে রওয়ানা হয়েছেন বলে বাগমারা থানার পুলিশের একজন দায়ীত্বশীল কর্মকর্তা জানিয়েছেন।
বাগমারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকার অনতি দূরেই থানা থাকার পরও যুবক জাহাঙ্গীর আলম নিখোঁজের বিষয়টি আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদেরকেও ভাবিয়ে তুলে। তার নিখোঁজের কারণে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। যার কারণেই পুলিশ তৎপরতা চালিয়ে জাহ্ঙ্গাীর আলমকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি (তদন্ত) আসাদুজ্জামান আসাদ নিখোঁজ যুবককে জাহাঙ্গীর আলমের উদ্ধারের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, তাকে নেয়ার জন্য বাগমারা থানার পুলিশের একটি দলকে পাঠানো হয়েছে। আজ সোমবার উদ্ধারকৃত যুবক জাহাঙ্গীর আলমকে বাগমারায় আনার পর নিখোঁজের বিষয়টি জানা যাবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ