বাগাতিপাড়ায় অতিরিক্ত দামে পেট্রল-অকটেন বিক্রি

আপডেট: মে ৭, ২০২২, ২:৩৯ অপরাহ্ণ

খাদেমুল ইসলাম, বাগাতিপাড়া প্রতিনিধি :


নাটোরের বাগাতিপাড়ায় অতিরিক্ত দামে জ্বালানি তেল পেট্রল ও অকটেনের মূল্য বৃদ্ধির অভিযোগ পাওয়া গেছে। শোনা গেছে তেলের অভাব থাকাই দোকানিরা নিজে নিজেই দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। অথচ প্রশাসন বলছে এমন তথ্য তাদের জানা নেই।

মোটরসাইকেল নিয়ে বেশ কয়েকটি দোকানে তেল ক্রয় করতে গেলে লিটারে ১০টাকা বেশি চেয়ে বসেন দোকানিরা। তারা সবাই বলেন, সারাদেশে তেলে সংকটের কারনে লিটারে দশ টাকা বেশি দাম দিতে হবে। নাহলে নেয়া লাগবে না তেল।

খোঁজ নিয়ে জানতে পারা গেছে উপজেলার দয়ারামপুর, মালঞ্চি, তমালতলা, জামনগর ও ফাগুয়াড়দিয়ারসহ সব বাজারে একই দামে তেল ক্রয় করতে হচ্ছে ক্রেতাদের। মতিউর রহমান নামের একজন ক্রেতা বলেন, গাড়ির তেলে শেষ হয়ে গেছে পথে বাধ্য হয়ে লিটারে ১০টা বেশি দিয়ে ৫লিটার তেল নিতে হলো।

আশরাফুল আলম নামের আরেকজন বলেন, তেল অতি প্রয়োজনের একটা জিনিস। দোকানিরা তেল লুকিয়ে রেখেও চাহিদা মতো তেল না দিয়ে দাম বেশি নিচ্ছেন। এ অভিযোগ নিয়ে কথা হয় বিহারকোল এলাকার তেল ব্যবসায়ি ফজলুর রহমানের সাথে।

তিনি বলেন, আমাদের কাছে তেল নিলে লিটারে ৯০টাকা অথাৎ আগের দাম দিতে হচ্ছে। তেলের যদি সংকট হয়ে থাকে তাহলে বিক্রি করবো না। তাও তেল মজুদ করে বেশি দাম নিয়ে ক্রেতাদের ঠকাতে পারবো না।

শুনেছি বিভিন্ন দোকানিরা দাম বেশি নিচ্ছে কিন্তু আমাদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ নেই। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াংকা দেবী পাল বলেন, ‘অতিরিক্ত দামে পেট্রল-অকটেন বিক্রি করলে কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে।

কেউ জ্বালানি তেলের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে বা সরকার নির্ধারিত মূল্যের অতিরিক্ত দাম নিলে সেই ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ