বাগাতিপাড়া সাব-রেজিস্ট্রি অফিস দলিল লেখক সমিতির দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ

আপডেট: জানুয়ারি ২৩, ২০২২, ৯:০২ অপরাহ্ণ


বাগাতিপাড়া প্রতিনিধি:


নাটোরের বাগাতিপাড়া সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদকে কেন্দ্র করে দলিল লেখক সমিতির দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই জন আহত হয়েছেন। আহত একজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও অপরজনের অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। রোববার (২৩ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে সাব-রেজিস্ট্রার অফিস ক্যাম্পাস চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন সোনাপাতিল মহল্লার মৃত জাবেদ আলীর ছেলে আইয়ুব আলী (৪৭) ও মো. শমসের আলীর ছেলে মিজানুর রহমান (৪০)।

কয়েকজন দলিল লেখক জানান, বাগাতিপাড়া সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দলিল লেখকদের মধ্যে দুটি গ্রুপে বিভক্ত হয়। এ দুই গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে এবং দলিল লেখক সমিতির নতুন কমিটি গঠনের জটিলতা নিয়ে তাদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে আসছে। এ নিয়ে গত ৫ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে কমিটির কার্যক্রম।

ঘটনার দিন সকালে কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে কমিটি চালুর বিষয়ে কথা কটাকাটি হয় এক পক্ষের। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কমিটির অপর পক্ষের কিছু সদস্য ও কিছু বহিরাগতরা অতর্কিত হামলা চালায় আহতদের উপরে। এমন ঘনটায় কমিটির সদস্যদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

দলিল লেখক সমিতির সভাপতি আরশেদ আলী জানান, দলিল লেখক সমিতির মধ্যে কিছু অসাধু লোকের কারনে বার বার বিতর্ক সৃষ্টি হয়। তেমনই হটাৎ করেই আজকে এমন ঘটনা ঘটেছে।

দলিল লেখক নেতা রুহুল আমিন সরকার জানান, এমপির সমর্থিত দলিল লেখক সমিতির সদস্যরা অবৈধভাবে সমিতির নামে তাদের প্রভাব বিস্তার করে আসছেন। এনিয়ে কথা বললে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত ও জখম করেছে।
বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, দলিল লেখকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় কোনো পক্ষই অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।