বাঘায় চাচার ছুরিকাঘাতে চিকিৎসাধীন ভাতিজার মৃত্যু

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২২, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি :


রাজশাহীর বাঘায় চাচা আবদুর রশিদের ছুরিকাঘাতে তার ভাতিজা শহিদ হোসেন (২০)-এর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২ নম্বর ওয়ার্ডে এক সপ্তাহ চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। এর আগে শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) আড়ানী পৌর বাজারের তেতুলতলায় প্রকাশ্য দিবালোকে ছরিকাঘাত করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার আড়ানী দিয়াড়পাড়া গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে শহিদ হোসেন ১৭ সেপ্টেম্বর নিজস্ব ভ্যানে করে যাত্রী নিয়ে আড়ানীর হাটে আসছিলেন। ভ্যান নিয়ে আড়ানী বাজারের তেতুলতলা পৌঁছলে আপন ছোট চাচা চকসিংগা গ্রামের আজাহার হোসেনের ছেলে আবদুর রশিদ পূর্বশত্রুতার জের ধরে ধারালো ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

এ সময় চাচা আবদুর রশিদকে স্থানীয়রা আটক করে আড়ানী ইদগাহ মাঠে ঘরের খুঁটির সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে রাখে। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। বর্তমানে সে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছে।

বাঘা থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, চাচা আবদুর রশিদের ছুরিকাঘাতে তার ভাতিজা শহিদ হোসেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। আসামির বিরুদ্ধে আগের যে অভিযোগটি ছিল, এই অভিযোগের সাথে হত্যা মামলার ধারাটি যোগ করা হবে। তবে ওই দিনই ঘটনাস্থল থেকে আবদুর রশিদকে আটক করে জেল হাজতে প্ররণ করা হয়।