বাঘায় ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি : খুঁটি ভেঙ্গে ৮ ঘণ্টা বিদ্যুতহীন

আপডেট: মে ২১, ২০২২, ১:২৫ অপরাহ্ণ

পীরগাছা গ্রামের নাজিনা বেগমের ঝড়ে ভেঙ্গে যাওয়া ঘর। ছবি: সোনার দেশ

আমানুল হক আমান, বাঘা (রাজশাহী) :


রাজশাহীর বাঘায় ঝড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার বাউসা ও আড়ানী এলাকার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ে এই ক্ষতি হয়। শনিবার ভোর ৪টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত এই এলাকা প্রায় ৮ ঘণ্টা বিদ্যুতহীন হয়ে ছিল।

সূত্রে জানা গেছে, শনিবার ভোর ৪টার দিকে পূর্ব-পশ্চিম থেকে উপজেলার আড়ানী ও বাউসা ইউনিয়নের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ে আম, লিচু, কলা, পেঁপেসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে। এই ঝড়ে বাউসা ইউনিয়নের বাউসা কাচারীপাড়া ও অমরপুর গ্রামে দুটি বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে পড়ে।

এছাড়া প্রায় ২০টি স্থানে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে গেছে। পীরগাছা গ্রামের নাজিনা বেগম তার দুটি মেয়েকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিল। ভোররাতে তার বাড়ির পাশে পাংগীর গাছ ঘরের উপর পড়ে আটকা পড়ে। এ সময় তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে উদ্ধার করে। তার টিনের ঘর সম্পূর্ণ ভেঙ্গে গেছে। তার স্বামী মঞ্জুর রহমান এলাকার বাইরে কৃষি কাজ করেন।

এ বিষয়ে উপজেলার দিঘা হিন্দুপাড়া গ্রামের বিপ্লব জানান, আমার কাঠাল বাগানের দুটি বড় গাছ ভেঙ্গে গেছে। হঠাৎ ঝড়ে আমেরও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া বিরতিহীন ভাবে বিদ্যুত না থাকায় ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ দুর্ভোগের মধ্যে পড়েন।

বাঘা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম সুমির কুমার দত্ত জানান, ঝড়ে দুটি বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে গেছে। এছাড়া প্রায় ২০টি স্থানে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে যাওয়ায় সমস্যা দেখা দিয়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিউল্লাহ সুলতান জানান, ক্ষতির পরিমাণ এ মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। আমরা সরেজমিন করে প্রতিবেদন করা হবে। তবে কিছু ক্ষতি হয়েছে।

বাঘা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের উপসহকারি প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন বলেন, ঝড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ও অসংখ্য স্থানে বিদ্যুতের তার ছিড়ে গেছে। বিদ্যুতের লাইন সংস্কার কাজ চলছে।
এ বিষয়ে বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানা বলেন, ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদন করলে তাদের সহায়তা প্রদান করা হবে।