বাঘায় নাট্য নির্মাতা শিমুলকে কুপিয়ে জখমের মামলায় গ্রেফতার ১

আপডেট: জানুয়ারি ১২, ২০২৪, ৮:৩২ অপরাহ্ণ


বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:


বাঘায় নাট্যকার ও নাট্য নির্মাতা ফিরোজ আহম্মেদ শিমুল সরকারকে কুপিয়ে জখমের মামলার আসামী রিংকু হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রিংকু হোসেন খায়েরহাট গ্রামের রেজাইল প্রামানিকের ছেলে।

এদিকে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফশার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন, ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি অনন্ত হিরা ও সাধারণ সম্পাদক এসএম কামরুজ্জামান সাগর। শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) তাদের যৌথ স্বাক্ষরে নিজস্ব প্যাডে উল্লেখ করেছেন, একজন সংস্কৃতি কর্মীর উপরে আঘাত মানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আঘাত করা।

জানা যায়, ফিরোজ আহম্মেদ শিমুল সরকার ভোটের দিন ৭ জানুয়ারি রাত ৯টার দিকে বাঘা উপজেলার সরেরহাট বাজারে স্মৃতি স্টুড়িও’র সামনে বসে চা খাচ্ছিলেন। এ সময় লালপুর উপজেলার দুড়দুড়ি গ্রামের শাহিনুর রহমান, হাফিজুর রহমান, রিংকু হোসেন, শফিকুল ইসলাম, মাসুম হোসেন, আরিফুল ইসলামসহ আরো ৫/৬ জনের একটি দল লোহার রড়, চাপাতি ও চাইনিজ কুড়াল নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।

৮ জানুয়ারি তার ছোট ভাই ফরহাদ হোসেন বাদি হয়ে ৬ জনকে আসামি করে বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ফিরোজ আহম্মেদ শিমুল সরকার সরেরহাট গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে।
ফিরোজ আহম্মেদ শিমুল সরকার দীর্ঘদিন থেকে নাট্যকার ও নাটক পরিচালনা করে আসছেন। তিনি ঢাকায় নাট্যকার ও নাটক পরিচালনক হিসেব ইতোমধ্যেই জনপ্রিয় হিসেবে গড়ে উঠেছেন। তিনি ভোট উপলক্ষে ২ জানুয়ারি নিজ বাড়িতে আসেন।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ইতোমধ্যেই একজন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Exit mobile version