বাঘায় পাঁচদিন থেকে বন্দি এক পরিবার

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৭, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

বাঘা প্রতিনিধি


বাঘায় রাস্তার সামনে এভাবেই বেড়া দিয়ে বন্দি করে রাখা হয়েছে একটি পরিবারকে-সোনার দেশ

রাজশাহীর বাঘায় ৫ দিন থেকে বন্দি করে রাখা হয়েছে একটি পরিবারকে। বাঁশের বেড়া দেয়ার কারণে বাড়ি থেকে বের হতে পারছে না ওই পরিবার।
জানা যায়, উপজেলার আড়ানী ইউনিয়নের উত্তর সোনাদহ গ্রামের নিরেন দেবনাথের বাড়ির গেটের সামনে একই গ্রামের প্রদ্যুৎ দেবনাথ, পঞ্চ দেবনাথ, প্রকাশ দেবনাথ, পবিত্র দেবনাথ নামের ব্যক্তিরা নিজের জমি দাবি করে বাঁশের বাতা দিয়ে বেড়া দিয়েছে। ফলে নিরেন দেবনাথ ৫ দিন থেকে বাড়িতে বন্দি রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে নিরেন দেবনাথ বাদি হয়ে বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।
আড়ানী ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য ছলিম উদ্দিন বলেন, তাদের মধ্যে জমিজমা দিয়ে দ্বন্দ্ব চলছে। ইতোমধ্যে তিনবার প্রদ্যুৎ দেবনাথসহ তাদের তিনবার মৌখিকভাবে সমঝোতা করে নিতে বলা হয়। বিষয়টি সমঝোতা না করে নিলে গত ১৫ সেপ্টেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানসহ স্থানীয়ভাবে সমঝোতার জন্য শালিস করা হয়। তারপর বিষয়টি প্রদ্যুৎ দেবনাথসহ তার লোকজন শালিশ অমান্য করে নিরেদ দেবনাথের বাড়ির গেটের সমানে বাঁশের বাতা দিয়ে বেড়া দিয়েছে। নিরুপায় হয়ে নিরেন দেবনাথ বাদি হয়ে গত বৃহস্পতিবার বাঘা থানায় একটি অভিযোগ করেন।
এ বিষয়ে আড়ানী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রভাষক রফিকুল ইসলাম বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেন। জানতে চাইলে প্রদ্যুৎ দেবনাথ বলেন, আমার জমির উপর বাঁশের বাতা দিয়ে বেড়া দিয়েছি। অন্য কারো জমিতে বেড়া দেয়া হয় নি। তবে আমার জমির ওপর বেড়া দেয়ার কারণে কে বাড়ি থেকে বের হতে পারবে আর কে হতে পারবে না এটা আমার দেখার বিষয় না।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী মাহমুদ বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। পুলিশ অফিসার তদন্ত করছে। তদন্তের রিপোট অনুয়ায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ