বাঘায় বহিরাগত আত্মীয়কে বাড়িতে রাখতে বারণ করায় মারপিট: আহত ৩ নারী

আপডেট: এপ্রিল ২৩, ২০২০, ৮:৪৬ অপরাহ্ণ

বাঘা প্রতিনিধি


বাঘায় প্রতিবেশীর মারপিটে আহত তিন নারী- সোনার দেশ

নারায়গঞ্জ থেকে রাজশাহীর বাঘায় আসা এক আত্মীয়কে বাড়িতে রাখতে বারণ করায় প্রতিবেশী তিন নারীর উপরে হামলা„ করা হয়েছে। এ হামলায় দুইজনের মাথা ফাটিয়ে ও আর একজনের হাত ভেঙে দেয়া হয়েছে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) উপজেলার চকছাতারী গ্রামে। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে।
অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার চকছাতারী গ্রামের ফজলু হোসেন, সোহান আহম্মেদ, মুন হোসেন, আনজু বেগমের বাড়িতে গত বুধবার (২০ এপ্রিল) নারায়গঞ্জ থেকে বেড়াতে আসে তাদের এক আত্মীয়। এ বিষয়টি চোখে পড়ে প্রতিবেশী হোসেন আলীর স্ত্রী সীমা বেগমের। তিনি পরদিন সকাল ১০টার দিকে ফজলু হোসেনের বাড়ির সামনে গিয়ে বর্তমানে দেশব্যাপী করোনা সংকটের কথা তুলে ধরে এবং সরকার ঘোষিত এক এলাকার মানুষ অন্য এলাকায় থাকতে পারবে না মর্মে বহিরাগত ওই আত্মীয়কে চলে যাবার জন্য বলে। এতে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে সীমা বেগম নিজ বাড়িতে চলে আসে। পরে ফজলু হোসেন ওই আত্মীয়ের কথা শোনার পর তার লোকজন নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে সীমার খাতুনের বাড়িতে এসে বিভিন্ন ভাষায় গালিগালাজ করে। এর প্রতিবাদ করলে ফজলু হোসেন ও তার লোকজন সীমা খাতুনের উপর হামলা চালায়। এ সময় সীমা খাতুনের চিৎকারে তার ফুফু শাহানাজ বেগম এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিট করা হয়। শাহানাজের মেয়ে লতা খাতুন এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিট করে হাত ভেঙে দেয় ফজলু হোসেন ও তার লোকজন। পরে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ