বাঘায় স্ত্রীর মামলায় স্বামী আটক

আপডেট: জুলাই ১২, ২০২০, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

বাঘা প্রতিনিধি:


রাজশাহীর বাঘায় স্ত্রী রুনা খাতুনের মামলায় স্বামী জহুরুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (১১ জুলাই) দিবাগত রাতে তাকে আটক করা হয়।
জানা যায়, রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আলাইপুর হাজামপাড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলের সঙ্গে চারঘাট উপজেলার তালতলা গ্রামের হকমান আলীর মেয়ে রুনার খাতুনের সামাজিকভাবে দেড় বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে ৩ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে জহুরুল ইসলাম। এই যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় অত্যাচার করা হয়। এরমধ্যে ৭ মাস আগে তাদের কোল জুড়ে আসে একটি সন্তান। সন্তান হওয়ার পর থেকে স্ত্রীকে ওই ৩ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করে জহুরুল। এই টাকা দিতে না পারায় অত্যাচারের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এক পর্যায়ে ৭ জুলাই বেধম মারপিট করে। এই মারপিটের খবর পেয়ে রুনার পরিবার তাকে উদ্ধার করে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

সেখানে চিকিৎসা নিয়ে ৮ জুলাই বাঘা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগ বাঘা থানার পুলিশ তদন্ত করে দুইদিন পর মামলা হিসেবে রেকর্ড করে এবং প্রধান আসামী রুনা খাতুনের স্বামী জহুরুল ইসলামকে আটক করে।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, অভিযোগের পর তদন্ত করে নিয়মিত মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া প্রধান আসামীকে আটক করে শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ