বাজারে সবজির দাম কমেছে, মাছের দাম বাড়তি

আপডেট: জুন ১৭, ২০১৭, ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


নগরীর বাজারগুলোতে রমজান মাসে সবজির দাম কমেছে। সবধরনের সবজি কম দামে বিক্রি হচ্ছে বাজারে। সবজির পর্যাপ্ত আমদানি রয়েছে বাজারে। আমদানি বেশি হলেও আগের তুলনায় বেচাবিক্রি কমেছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। তবে মাছের দাম গত সপ্তার থেকে কেজিপ্রতি ২৫ থেকে ৩০ টাকা বেড়ে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। মাছ ব্যবসায়ীদের মতে, মাছের আমদানি কমে যাওয়ায় বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে মাছ।
গতকাল শুক্রবার সাহেববাজার মাস্টারপাড়ার সবজি ব্যবসায়ী বিপ্লব জানান, বাজারে প্রতিকেজি আলু ১০ থেকে ১২ টাকা, পেঁপে ১০ থেকে ১৫ টাকা, টমেটো ৬০ টাকা, পটল, ঝিঙ্গা ও ঢেরস ৫ টাকা, বেগুন ১৫ থেকে ২০ টাকা, বরবটি ১৫ টাকা, করল্লা ১৫ থেকে ২০ টাকা, প্রতি হালি লেবু ৬ টাকা, প্রতি কেজি মিষ্টি কুমড়া ২০ টাকা, গাঁজর ৫০ থেকে ৬০ টাকা, শসা ১০ টাকা ও প্রতি পিস লাউ ১০ টাকা, কাঁকরোল ১৫ থেকে ২০ টাকা ও চিচিঙ্গা ১৫ থেকে ২০ টাকায় বিক্রি হয়।
এছাড়া বাজারে প্রতিকেজি মরিচ ৬০ থেকে ৭০ টাকা, পিয়াজ ২২ থেকে ২৪ টাকা, আদা ৮০ টাকা ও রসুন ১০০  টাকায় বিক্রি হয়।
নগরীর সাহেববাজার মাছ আড়তের মাছ ব্যবসায়ী মমিন জানান, প্রতিকেজি রুই মাছ ২৪০ থেকে ২৮০ টাকা, কাতল মাছ ২৮০ থেকে ৩২০ টাকা, গ্লাসকাপ ১৬০ থেকে ২২০ টাকা, তেলাপিয়া মাছ ১৪০ থেকে ১৮০ টাকা, মিরকা মাছ ১৬০ থেকে ২০০, জাপানি ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা বিক্রি হয়।
এদিকে নদীর প্রতিকেজি কাটা পাতাসি ও বাশপাতা ৮০০ থেকে ১ হাজার টাকা, পবা ও আইড় ৬০০ থেকে ৮০০, বাইম, জিওল ও মাগুর ৬০০ থেকে ১০০০ টাকা, টেংরা ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, বোয়াল ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, ইলিশ মাছ ও চিংড়ি ৮০০ থেকে ১ হাজার টাকা ও ময়া মাছ ২৮০ থেকে ৪০০ টাকা, মহলা মাছ ৪০০ টাকায় বিক্রি হয়।
এদিকে গরুর গোশত বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতিকেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৪৭০ টাকা এবং খাশির গোশত ৭০০ টাকায় বিক্রি হয়। এদিকে বাজারে সোনালি মুরগি ১৮০ থেকে ১৯০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১৪০ টাকা, দেশি মুরগি ৩৫০ টাকা, কর্ক মুরগি ১৪৫ টাকায় বিক্রি হয়। এছাড়া প্রতিহালি মুরগির ডিম ১৮ থেকে ২৪ টাকায় বিক্রি হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ