বাজারে সবজি ও পিঁয়াজ-মরিচের দাম বাড়তি

আপডেট: এপ্রিল ২২, ২০১৭, ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


কয়েক সপ্তা থেকে বাজারে সবজি বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে। তবে সবজির মধ্যে করল্লা, বরবটি ও মরিচ ও রসুনের দাম বেড়েছে। সপ্তাহে শুক্রবার ছুটির দিন থাকায় বাজারে ক্রেতার আগমন বেশি থাকে। তবে বাজারে মাছের সরবরাহ বেশি থাকলেও ক্রেতার সমাগম কম দেখা গেছে। নগরীর বিভিন্ন জায়গায় ছোট-বড় বাজার হওয়ায় বড় ধরনের বাজারগুলোতে ক্রেতার সমাগম কম বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। বন্ধের দিন হওয়ায় ছোট-বড় মাছের চাহিদা ছিল বাজারে। তবে কয়েক সপ্তাহ ধরে মাছের দামের তেমন প্রভাব পড়েনি। তবে বাজারে সবজির দাম ক্রমাগত বেড়েই চলেছে। এছাড়া গরুর গোশত ও মুরগির প্রতি চাহিদা ছিল বাজারে।
সাহেববাজার মাস্টারপাড়ার সবজি ব্যবসায়ী বিপ্লব জানান, প্রায় একমাস ধরে সবজির দাম ধীরে ধীরে বাড়ছে। পর্যাপ্ত সবজির আমদানি হবে দাম কমে যাবে বলে আশা করেন সবজি ব্যবসায়ীরা। বাজারে সবজির সরবরাহ ক্রেতার চাহিদা মতো ছিল বাজারে। তবে মরিচের দাম ১৫ থেকে ২০ টাকা বেড়ে ৩০ থেকে ৪০ টাকায় ও পিঁয়াজ ৭ টাকা বেড়ে ২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
নগরীর সাহেববাজার মাস্টারপাড়ার সবজি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাজারে প্রতিকেজি আলু ১৩ থেকে ১৪ টাকা, কাঁচা পেঁপে ২০ থেকে ২৫ টাকা, টমেটো ২৫ টাকা, পটল ২০ খেকে ২৫ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, ঠেঁরস ১৫ থেকে ২০ টাকা, করল্লা ৪০ টাকা, বরবটি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, প্রতি পিস ছোট কাঁঠাল ৬০ থেকে ৮০ টাকা, প্রতি হালি লেবু ১২ থেকে ১৬ টাকা, প্রতি কেজি মিষ্টি কুমড়া ও গাঁজর ২০ টাকা ও প্রতি পিস লাউ ২০ থেকে ২৫ টাকায় বিক্রি হয়। এছাড়া বাজারে প্রতিকেজি মরিচ ৩০ থেকে ৪০ টাকা, পিয়াজ ২৫ টাকা, আদা ৬০ টাকা, রসুন ১০০ টাকায় বিক্রি হয়।
নগরীর সাহেববাজার মাছ আড়তের মাছ ব্যবসায়ী মমিন জানান, প্রতিকেজি রুই মাছ ২২০ থেকে ২৮০ টাকা, কাতল মাছ ২৩০ থেকে ৩০০ টাকা, গ্লাস কাপ ১৪০ থেকে ১৮০ টাকা, তেলাপিয়া মাছ ১৩০ থেকে ১৬০ টাকা, মিরকা ১৪০ থেকে ১৮০ টাকা, জাপানি মাছ ১৩০ থেকে ১৬০ টাকায় এবং নদীর মাছ কাটা পাতাসি ৪৮০ থেকে ৬০০ টাকা, দেশি মাগুর ৬০০ থেকে ৭৫০ টাকা, বাঁশপাতা ও পবা ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, আইড় ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা, বাইম, টেংড়া, জিওল ও বোয়াল ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, ইলিশ মাছ ৮০০ থেকে ১ হাজার টাকা, ময়া মাছ ২২০ থেকে ৩৮০ টাকায় বিক্রি হয়।
এদিকে গরুর গোশত বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতিকেজি গরুর মাংশ বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ টাকা এবং খাশির মাংশ ৬৫০ টাকা থেকে ৭০০ টাকায় বিক্রি হয়।
এদিকে বাজারে সোনালি মুরগি ১৯০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা, দেশি মুরগি ২৯০ থেকে ৩০০ টাকা, কর্ক মুরগি ১৮০ টাকায় বিক্রি হয়। এছাড়া প্রতিহালি মুরগির সাদা ডিম ২৮ টাকা আর লাল ৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়।