বানোয়াট অভিযোগে নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ড: আদালত

আপডেট: ডিসেম্বর ৮, ২০২১, ৬:৪৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


শিবির সন্দেহে আবরার ফাহাদ রাব্বির বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ এনে নির্মম এবং নিষ্ঠুরভাবে তাকে হত্যা করেছে, যা বাংলাদেশের সব মানুষকে ব্যথিত করেছে।

বুধবার (০৮ ডিসেম্বর) দুপুরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান আবরার হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন।

এ দিন সকাল পৌনে ৯টার দিকে কারাগারে থাকা ২২ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। বেলা পৌনে ১২টায় তাদের এজলাশে তোলা হয়। দুপুর ১২টায় রায় ঘোষণা শুরু হয়।
শুরুতেই সংক্ষিপ্ত রায়ে বিচারক ঘটনা ও বিচারের ধারাবাহিকতা উল্লেখ করেন। এরপর আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ শাস্তির প্রেক্ষাপট ও অভিন্ন অভিপ্রায়ের ব্যাখ্যা দিয়ে সব আসামিকে শাস্তির সিদ্ধান্তের কথা জানান।

এ সময় আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেন, নিঃসন্দেহে সব আসামি পরস্পরের যোগসাজশে একে অপরের সহায়তায় শিবির সন্দেহে আবরার ফাহাদ রাব্বীর বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ এনে নির্মম এবং নিষ্ঠুরভাবে তাকে হত্যা করেছে। যা বাংলাদেশের সব মানুষকে ব্যথিত করেছে।

আদালত বলেন, বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বীর নৃশংস হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে আর কখনও না ঘটে তা রোধকল্পে অত্র ট্রাইব্যুনালে সব আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হলো।

এরপর আদালত ২০ আসামিকে মৃত্যুদ- ও ৫ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদ-ের রায় ঘোষণা করেন।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ