বার বার অবস্থান পরিবর্তন, দালালের সহায়তায় দেশত্যাগের চেষ্টা

আপডেট: জুলাই ১৫, ২০২০, ২:০৭ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


‘বার বার অবস্থান পরিবর্তনের কারণে বেশ কয়েকবার প্রতারক সাহেদের কাছাকাছি গিয়েও তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। সাতক্ষীরায় তার অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর গত মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) রাত ২টা থেকে অভিযান শুরু করলেও বুধবার (১৫ জুলাই) ভোর ৫টা ১০মিনিটে সাহেদকে অবশেষে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়।’
বুধবার (১৫ জুন) সকাল ৯টার পর সাহেদকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় আনার পর তেজগাঁওয়ে পুরাতন বিমানবন্দরে এসব কথা জানান র‌্যাবের এডিজি অপারেশন কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার।
তিনি বলেন, ‘ঘন ঘন অবস্থান পরিবর্তনের কারণে সাহেদের কাছাকাছি কয়েকবার পৌঁছানো সম্ভব হলেও গ্রেফতার এড়াতে পেরেছেন। গত ৯ দিনের টানা চেষ্টার পর অবশেষে বুধবার ভোর ৫টা ১০মিনিটে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কোমরপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদীতীর সীমান্ত থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।’
‘সাহেদ স্থানীয় দালালের মাধ্যমে সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। আমরা কিছু দালালের নাম পেয়েছি, এগুলো নিয়ে আমরা কাজ করছি। তিনি বোরকা পরে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন।’
তিনি বলেন, সাহেদের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর রাত ২টার দিকে আমরা সাতক্ষীরায় অভিযান শুরু করি। তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।’
বুধবার ভোরে র‌্যাবের বিশেষ অভিযানে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কোমরপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদীর তীর সীমান্ত এলাকা থেকে সাহেদকে গ্রেফতার করা হয়।
সকাল নয়টায় সাহেদকে সঙ্গে করে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার তেজগাঁওয়ে পুরাতন বিমানবন্দরে পৌঁছায় র‌্যাবের আভিযানিক দল।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ