বাড়ছে করোনা। বিমানবন্দরগুলিতে ফের মাস্ক পরা নিয়ে কড়াকড়ির নির্দেশ দিল্লি হাই কোর্টের

আপডেট: জুন ৩, ২০২২, ৭:৫৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


বিমানবন্দরে মাস্ক পরার ক্ষেত্রে কোনওরকম ঢিলেমি নয়। কড়াভাবে কার্যকর করতে হবে করোনা বিধি। সাফ জানিয়ে দিল দিল্লি হাই কোর্ট। আদালতের বক্তব্য, মাস্ক ছাড়া বিমানে উঠলে যাত্রীদের সটান নামিয়ে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে তাঁদের ‘নো ফ্লাই’ লিস্টে পাঠাতে হবে।

আসলে দেশে করোনার প্রকোপ কমতে থাকায় এপ্রিলের শুরুর দিকে অধিকাংশ রাজ্যই মাস্ক পরার ক্ষেত্রে কিছুটা শিথিলতা এনেছিল। মহারাষ্ট্র, দিল্লি থেকে বাংলা। অধিকাংশ রাজ্যই জানিয়ে দিয়েছিল, পাবলিক প্লেসে মাস্ক না পরলেও কেউ শাস্তি পাবেন না। প্রশাসনের সেই ‘ঢিলেমি’র সুযোগে আমনাগরিকদের একটা বড় অংশ মাস্ক পরা ছেড়েই দিয়েছিল।

কিন্তু গত দু’তিন সপ্তাহে হঠাৎ করেই দেশে বাড়তে শুরু করেছে করোনা। যার ফলে ফের করোনা নিয়ে কড়াকড়ির সময় এসেছে বলে মনে করছে দিল্লি হাই কোর্ট। বিশেষ করে বিমানবন্দরে। কারণ মূলত বিদেশ থেকেই করোনার নতুন নতুন স্ট্রেন ভারতে ঢুকে দেওয়ার প্রবণতা দেখা যায়।

দিল্লি হাই কোর্টের বক্তব্য, খাতায় কলমে অনেক নিয়ম থাকলেও সেগুলি সবসময় সঠিকভাবে কার্যকর করা হয় না। তাই প্রশাসনকে নিশ্চিত করতে হবে সব নিয়ম যেন সঠিকভাবে কার্যকর হয়। আদালত সাফ জানিয়ে দিয়েছে, বিমান সংস্থাগুলিকে আলাদা নির্দেশিকা দেওয়া হোক, যাতে বিমানবন্দর এবং বিমানের ভিতর করোনা বিধি বজায় থাকে।

কোনও যাত্রী মাস্ক ছাড়া বিমানে উঠলে তাঁকে যেন নামিয়ে দেওয়া হয়। প্রয়োজনে তাঁকে ‘নো ফ্লাই’ লিস্টে পাঠিয়ে দিতে হবে। শুধু তাই নয়, যারা করোনা বিধি মানছে না, তাঁদের প্রত্যেককে জরিমানাও করতে হবে।

হাই কোর্টের এই নির্দেশের পরই প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি ফের গৃহবন্দি হওয়ার দিন ফিরছে? বস্তুত গত কয়েক দিন লাগাতার বাড়ছে দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের সাম্প্রতিকতম পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৪ হাজার ৪১ জন।

মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। বৃহস্পতিবার দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩ হাজার সাতশোর সামান্য বেশি। সেই সংখ্যাই একদিনে লাফিয়ে বেড়ে পেরিয়ে গেল ৪ হাজার।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ