বাড়ি পাচ্ছেন ক্ষুদ্রতম ‘মা’ মাসুরা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


এশিয়ার ক্ষুদ্রতম ‘মা’ পবার মাসুরার দুঃখের দিন শেষ হতে যাচ্ছে। মাসুরার প্রতিবেদনটি দৈনিক সোনার দেশ’ পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর বিষয়টি জেলা প্রশাসকের নজরে আসে। পারিলা ইউনিয়নে নিজ গ্রামে মাসুরার পরিবার আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর পেতে যাচ্ছে। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে নিজ কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল তাৎক্ষণিকভাবে ঐ পরিবারকে দশ হাজার টাকার আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন।

এবিষয়ে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল জানান, উচ্চতা মাত্র ৩৮ ইঞ্চি নিয়েও মা হয়েছেন-রাজশাহীর পবা উপজেলার পারিলা ইউনিয়নের বজরপুর গ্রামের মাসুরা বেগম। এশিয়ায় সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম ‘মা’ পবার মাসুরা থাকেন পরের জমিতে ঘর করে। নিজের ও পরিবারের সদস্যদের জন্য মাথা গোঁজার ঠাঁইটুকু ছিল না। চাচার জমিতে এতদিন ঘর করে ছিলেন তিনি। এ অবস্থায় বিষয়টি জানার পর তাকে ১০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে পারিলা ইউনিয়নে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. সালাহ উদ্দীন-আল-ওয়াদুদ, পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও লসমী চাকমা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) অভিজিত সরকার, সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ইশতিয়াক মজনুন ইশতি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ