বিএনপির ডাকা অবরোধে রাজশাহীর জীবনযাত্রা স্বাভাবিক

আপডেট: ডিসেম্বর ৩, ২০২৩, ১১:১৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


বিএনপির ডাকা অবরোধে কোনো প্রভাব পড়েনি রাজশাহীতে। অবরোধ ঘোষণার মধ্যেও রাজশাহীতে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। রোববার (৩ ডিসেম্বর) বিএনপির ডাকা একদফা দাবিতে ৪৮ ঘণ্টার অবরোধের প্রথম দিন ছিল। বিএনপির ডাকা নবম দফার এ কর্মসূচি আগামী আগামি মঙ্গলবার সকাল ৬টায় শেষ হবে।

অবরোধকে কেন্দ্র করে রাজশাহীতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। ফলে সড়কে ছোট-বড় যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। একই সাথে রাজশাহীতে চলাচল করেছে বাস, অটো, অটোরিক্সাসহ ছোট-বড় যানবাহন। একই সাথে রাজশাহী থেকে সব রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। নির্দিষ্ট সময়ে রাজশাহী থেকে ট্রেন যাওয়া-আনা করেছে। অপরদিকে, নগরীতে সবধরনের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠা ও দোকানপাট খোলা ছিল। শপিংমলগুলোতে ক্রেতাদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

সকালে নগরীর বিনোদপুর, তালাইমারী, ভদ্রা, সাহেববাজার, জিরোপয়েন্ট, গোরহাঙ্গা (শহীদ কামারুজ্জামান চত্বর) লক্ষ্মীপুর, নওদাপাড়া এলাকায় যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। এদিন খড়খড়ি বাইপাস এলাকায় দিয়ে বেলপুকুর-নওদাপড়া সড়কে পণ্যবাহী ট্রাক চলাচল করতে দেখা গেছে। একইভাবে ভদ্রা মোড় থেকে বাস ছেড়ে যেতে দেখা গেছে। এদিন তুলানামূলক যাত্রীদের উপস্থিতি বেশি লক্ষ্য করা গেছে।

ভদ্রা চত্বরে অটোরিক্সা চালক রাজীব বলেন, সকাল থেকে গাড়ি চালাচ্ছি। স্বাভাবিক দিনের মতই যাত্রী হচ্ছে। কারণ অফিস, আদালত, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা। তাই স্বাভাবিক দিনের মত মানুষের চলাচল রয়েছে।

বাসের যাত্রী চাকরিজীবী সাইফুল ইসলাম তুহিন জানায়, প্রতি বৃহস্পতিবার বাড়িতে আসেন তিনি। শুক্র-শনিবার থেকে রোববার কর্মস্থলে ফিরে যান। অবরোধে পথে যাওয়া আসায় সুবিধা অসুবিধার বিষয়ে তিনি বলেন, প্রথম প্রথম অবরোধের সময়ে বাসে উঠতে ভয় পেতাম। এখন অবরোধেও সব বাস চলাচল করে। সড়কে বাসের সাথে অন্য যানবাহনও চলাচল করছে। তাই আর ভয় লাগে না।

রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপ কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মুন্না জানান, বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। ভদ্রা মোড় থেকে সব বাস সময় মত ছেড়ে গেছে। বাসগুলোতে যাত্রীদের উপস্থিতি ভালো ছিল। এছাড়া সড়কে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা খবর পাওয়া যায়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ