বিএনপি রক্ষা কমিটি গঠন

আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০১৭, ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



রাজশাহীর বিএনপিতে দ্বন্দ্ব বাড়ছেই। নবগঠিত কমিটি বাতিলের দাবিতে বিএনপির একাংশ লাগাতার কর্মসূচি পালন করছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রোববার এ কমিটি বাতিলের দাবিতে এবং রাজশাহীর বিএনপিকে রক্ষার জন্য রাজশাহী বিএনপি রক্ষা কমিটি গঠন করেছে তারা। এর আগে তারা দলীয় কার্যালয়ে তালা, জনপ্রতিনিধিদের দ্বারা বিএনপির চেয়ারপারসন বরাবর চিঠি লিখেছে।
গত ২৭ ডিসেম্বর সাত বছর পর কেন্দ্র থেকে প্রভাবশালী দুই নেতাকে বাদ দিয়ে রাজশাহী নগর ও জেলা বিএনপির কমিটি গঠন করা হয়। নগর বিএনপির সভাপতির পদ থেকে কেন্দ্রীয় বিএনপির উপদেষ্টা ও সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব মিজানুর রহমান মিনুকে বাদ দিয়ে কেন্দ্রীয় বিএনপির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের বরখাস্ত হওয়া মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। জেলায় সাবেক সাংসদ ও জেলা সভাপতি নাদিম মোস্তফাকে বাদ দিয়ে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তপুকে। নগর কমিটিতে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, কেন্দ্রীয় বিএনপির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক শফিকুল হক মিলনকে। তিনি আগের কমিটিতেও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। জেলায় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সাবেক কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান মন্টুকে।
গতকাল রোববার নগরীর মতিহার থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক ডিকেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিকেল ৪টায় নগরীর রাজারহাতার বালুর মাঠে রাজশাহী মহানগর বিএনপির সকল স্তরের নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভা এবং সকলের সমন্বয়ে ও মতামতের ভিত্তিতে রাজশাহী বিএনপি রক্ষা পরিষদের কমিটি ঘোষণা হয়েছে।
এ কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল হুদা ও সদস্য সচিব বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সভাপতি সাইদুর রহমান পিন্টুসহ ৩১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজপাড়া থানা বিএনপির সভাপতি শওকত আলী, মহানগর বিএনপি নেতা ফজলে এলাহী বাবন, আশরাফ জামাল আব্বু, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম সরকার, মতিহার থানা বিএনপির সভাপতি আনসার আলী, শাহ মখদুম থানা বিএনপির সভাপতি মনিরুজ্জামান শরীফ, রাজপাড়া থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, শাহ মখদুম থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আ. মতিন, যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটি সদস্য ওয়ালিউল হক রানা, বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম মিলু, ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ারুল ইসলাম আজব, ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু বকর কিনু, ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহমেদ, ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনির হোসেন, বোয়ালিয়া থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন দিলদার, মহানগর বিএনপি নেতা ওয়াশকরনী ডাইমন্ড, শাহ মখদুম বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ বাবু, রাজপাড়া বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মুরাদ পারভেজ মিন্টু,  মহিলা কাউন্সিলর মুসলিমা বেলী, নাসিরা বেগম, শামসুন্নাহার, শাহনাজ পারভীন লাকী, ছাত্রদল সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, যুবনেতা মাহফুজ হাসনাইন হিকোল, স্বেচ্ছাসেবক আহ্বায়বৃন্দ মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, আকতার হোসেন, জাকির হোসেন রিমন, আবেদুর রেজা রিপন, আনন্দ কুমার। ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মাহফুজুর রহমান রিটন, মহানগর ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল সহ-সভাপতি ইসমাইল আলী রাহীসহ সাংগঠনিক ৩৭টি ওয়ার্ড বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সভায় নেতৃবৃন্দ রাজশাহী মহানগর ও জেলা বিএনপি’র সদ্য ঘোষিত সমন্বয়হীন বিতর্কিত কমিটি স্থগিত করে সম্মেলন ও কাউন্সিলের মাধ্যমে অনতিবিলম্বে নতুন কমিটি পুনঃগঠনের দাবিসহ আগামী দিনে মহানগর বিএনপি’র সকল কেন্দ্রীয় কর্মসূচি সদ্য ঘোষিত রাজশাহী বিএনপি রক্ষা কমিটির নেতৃত্বে পালন করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।