বিভাগীয় পেনশন মেলার উদ্বোধনিতে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব সর্বজনীন পেনশন স্কিমই বৃদ্ধ বয়সে একমাত্র অবলম্বন হবে

আপডেট: এপ্রিল ১৯, ২০২৪, ৭:০৪ অপরাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক :


প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে সবার জন্য পেনশন চালু করার অঙ্গীকার ছিল। সেই লক্ষ্যে পেনশন কর্মসূচির প্রতি জনগণকে আগ্রহী করে তুলতে প্রথমবারের মতো রাজশাহী বিভাগে দিনব্যাপী সর্বজনীন পেনশন মেলা উদ্বোধন করা হয়েছে।

এক্ষেত্রে ওয়েবসাইটের সর্বশেষ তথ্য মতে পেনশন স্কিম নিবন্ধন কর্মসূচিতে দেশের অন্যান্য জেলার তুলনায় রাজশাহী জেলা এগিয়ে আছে। সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কর্মসূচিকে আরো বেগবান করতে ধারাবাহিকভাবে দেশের প্রতিটি বিভাগে এই মেলার আয়োজন করা হবে। সময় সাপেক্ষে সর্বজনীন পেনশন স্কিমই বৃদ্ধ বয়সে একমাত্র অবলম্বন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) সকালে নগরীর হাজি মুহাম্মদ মুহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সর্বজনীন পেনশন মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের উদ্দেশে এ কথা বলেছেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া আরও বলেন, সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় রয়েছে চারটি আলাদা স্কিম। সেগুলো হচ্ছে– প্রবাস, প্রগতি, সুরক্ষা ও সমতা। এর মধ্যে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য প্রবাস; বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবীদের জন্য প্রগতি; রিকশাচালক, কৃষক, শ্রমিক, কামার, কুমার, জেলে ও তাঁতি ইত্যাদি স্বকর্মে নিয়োজিত নাগরিকদের জন্য সুরক্ষা এবং নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য সমতা স্কিম নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, যাদের জীবন বিমা আছে তারাও এই সর্বজনীন পেনশন স্কিমে সদস্য হতে পারবেন। রাষ্ট্র নিজেই এই সর্বজনীন পেনশন স্কিমের কর্তৃপক্ষ সেহেতু সরকার পরিবর্তন হলেও প্রতিশ্রুতি মতে গ্রাহকের সমুদয় সুবিধা ও অর্থ প্রদান করবে। মেয়াদ পূর্তির আগেই কেহ মারা গেলে তার নমিনি পুরো টাকা ফেরৎ পাবেন। লাভসহ প্রদেয় টাকা লোকসানের কোন আশংকা নেই।

মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে রাজশাহী কারা প্রশিক্ষণ অডিটরিয়ামে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের আয়োজনে সর্বজনীন পেনশন স্কিম সংক্রান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মশালায় বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর এঁর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ, মাইক্রোক্রেডি রেগুলেটরী অথরিটির এক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান ফসিউল্লাহ, এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সাইদুর রহমান, জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালক মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকী।

কর্মশালায় সর্বজনীন পেনশন স্কিম সংক্রান্ত মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এবং বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের সদস্য মো. গোলাম মোস্তফা।

প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন, রাজশাহী এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক তসিকুল ইসলাম রাজা, জয়পুরহাট জেলা প্রশাসক সালেহীন তানভীর গাজী, গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন হাসান সোহাগ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন আকতার, বগুড়া পুলিশ সুপার, শাপলা এনজিও প্রতিনিধি মো. মহসীন সহ টিএমএসএস প্রতিনিধি প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ