বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ নিশ্চিতের দাবিতে স্মারকলিপি

আপডেট: জুন ১৬, ২০১৭, ১:০৬ পূর্বাহ্ণ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি


রাজশাহী নাগরিক সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে রাজশাহীতে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ নিশ্চিত করার দাবিতে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের নিকট স্মারক লিপি প্রদান করা হয়েছে। গতককাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় স্মারকলিপি প্রদানের সময় নেতৃবৃন্দ বলেন, রাজশাহীতে বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট দিন দিন তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। ওয়াসার সরবরাহকৃত পাইপ লাইনের পানি খাওয়া বা রান্নার কাজে ব্যবহার করা যায় না। কারণ পানি সরবরাহের পাইপগুলো অনেক পুরোনো। এগুলোর ভিতর শেউলা জমে, কেচো, পোকা-মাকড় বাসা বেঁধেছে। এই পরিস্থিতিতে খাওয়ার পানির একমাত্র অবলম্বন সিটি করপোরেশনের বসানো কিছু নি¤্ন মানের টিউবওয়েল। এগুলো স্থাপনের সময় নি¤্ন মানের উপকরণ ব্যবহারের কারণে বেশীর ভাগই নষ্ট থাকে এবং ঘোলা ময়লা পানি বের হয়।
এই রমজান মাসে খাওয়ার পানি সরবরাহের একমাত্র অবলম্বন কিছু সচল টিউবওয়েল প্রতিটি টিউবওয়েলের কাছে শত শত মানুষ পানি সংগ্রহের জন্য লাইন ধরে থাকে। অবিলম্বে রাজশাহীতে পর্যাপ্ত পরিমানে ওয়াটার ট্রিটম্যান্ট প্ল্যান্ট বসিয়ে নতুন পাইপ লাইনের মাধ্যমে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ করতে হবে। তবে এই কাজটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। তাই নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে জরুরী ভিত্তিতে ৩০০০টি ভাল মানের টিউবওয়েল বসিয়ে নগরবাসীর বিশুদ্ধ খাবার পানির সংস্থান এই মুহুর্তে করা প্রয়োজন।
রাজশাহী ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আজাহার আলী রাজশাহী নাগরিক সমন্বয় কমিটির নেতৃবৃন্দকে বলেন, খুব শীঘ্রই পদ্মা ও মহানন্দার পানি শোধন করে সম্পূর্ন নতুন পাইপ লাইনের মাধ্যমে রাজশাহীর নাগরিকদের জন্য বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ করা হবে। রাজশাহীর ৬৫০ কি.মি. পানি সরবরাহ লাইনের পাইপের বেশীর ভাগ বদল করা হয়েছে এবং বাকী গুলো বদলানো হবে খুব শ্রীঘ্রই। তিনি আগামী তিন বছরের মধ্যে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ নিশ্চিত করার আশাবাদ ব্যাক্ত করেন এবং সুয়ারেজ লাইন স্থাপন করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।
স্মারক লিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন, মো. সামসুদ্দিন আহ্বায়ক রাজশাহী নাগরিক সমন্বয় কমিটি, সেকেন্দার আলী সদস্য সচিব রাজশাহী নাগরীক সমন্বয় কমিটি, রাজশাহী নাগরিক সমন্বয় কমিটির আহ্বায় প্যানেল সদস্য ভাষাসৈনিক মোশাররফ হোসেন আখুঞ্জি, রাজশাহী নাগরিক সমন্বয় কমিটির আহ্বায় প্যানেল সদস্য এবং সিনিয়র সাংবাদিক ও অ্যাডভোকেট মুস্তাফিজুর রহমান খান, বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদের রাজশাহী শাখার সভাপতি বিমল কুমার সরকার। আরডিএ কর্তৃক পুনর্বাসিত সাধারণ ব্যবসায়ী সমিতি সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ মাদুদ হাসান, রাজশাহী সিটি করপোরেশন গোস্ত ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আতাহার আলী, স্টোডিয়াম মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, রাজশাহী ব্যবসায়ী সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম টুকু প্রমুখ।