বিশ্বব্যাংকের বৈশ্বিক উদ্বাস্তু নীতি সমর্থন করে জাতিসংঘ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১, ৭:২০ অপরাহ্ণ

জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো। ফাইল ছবি।

সোনার দেশ ডেস্ক:


রোহিঙ্গাসহ অন্যান্য উদ্বাস্তুদের জন্য বিশ্বব্যাংকের বিতর্কিত বৈশ্বিক নীতি সমর্থন করে জাতিসংঘ। শুধু তাইনা ওই উদ্বাস্তু নীতি প্রণয়নে জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা সরাসরি জড়িত বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো।

আজ রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে ডিপ্লোমেটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ-ডিক্যাব আয়োজিত ডিক্যাব টকে তিনি বলেন, ‘বৈশ্বিক উদ্বাস্তু নীতির ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘ একই মনোভাব পোষণ করে।’

উল্লেখ্য, বিশ্ব ব্যাংকের রিফিউজি পলিসি রিভিউ ফ্রেমওয়ার্কের তিনটি উদ্দেশ্য হলো ‑ উদ্বাস্তু ও হোস্ট কমিউনিটির জন্য অর্থনৈতিক সুযোগ তৈরি করা, উদ্বাস্তুরা যেদেশে অবস্থান করছে সেই সমাজে অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়া অথবা তাদের ফেরত পাঠানো, এবং দেশের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা যাতে করে নতুন উদ্বাস্তুদের আশ্রয় দেওয়া সম্ভব হয়।
বিশ্ব ব্যাংকের নীতি বাংলাদেশ প্রত্যাখ্যান করলেও জাতিসংঘ কর্মকর্তা আশা প্রকাশ করে বলেন যে, ‘এই অর্থায়ন কক্সবাজারের রোহিঙ্গাদের জন্য অত্যন্ত দরকারি। বিশ্বব্যাংকের এই অর্থ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগণের জন্য দরকারি। আমরা আশা করি, বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে সরকার সংলাপ অব্যাহত রাখবে।’

তিনি জানান, বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে মানবিক সহায়তা বজায় রাখার জন্য অর্থায়ন সংগ্রহ করা।

তবে ‘বাংলাদেশ সরকার তাদের অবস্থান পরিষ্কারভাবে ব্যক্ত করেছে কিভাবে তারা রোহিঙ্গা সমস্যা মোকাবিলা করবে।’ বলেও জানান তিনি।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন