বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ৩ লাখ, মৃত ১৫ হাজার ৩০৭

আপডেট: মার্চ ২৪, ২০২০, ১২:২৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে এ পর্যন্ত বিশ্বের ১৯২ টি দেশ ও অঞ্চলে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৪৯ হাজার ৯৬৯ জন। মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১৫ হাজার ৩০৭ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ লাখ ৩৪৫ জন। বাংলাদেশ সময় সোমবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত জরিপ পর্যালোচনা সংস্থা ওয়ার্ল্ড ওমিটার এই পরিসংখ্যান জানিয়েছে।
২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চিনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। উৎপত্তিস্থল চিনে ৮০ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমে গেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে এই ভাইরাসের প্রকোপ বাড়ছে। আন্তর্জাতিক চিনের বাইরে করোনা ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে ১১ মার্চ পৃথিবীব্যাপী মহামারি ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ড ওমিটারের ওয়েবসাইটে বলা হয়, সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা চীনে। সেখানে মোট ৮১ হাজার ৫৪ জন ব্যক্তি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছ ৩ হাজার ২৭০ জনের। তবে মৃতের হিসেবে চিনকেও ছাড়িয়ে গেছে ইতালি। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ৫ হাজার ৪৭৬, আর আক্রান্ত হয়েছেন ৫৯ হাজার ১৩৮ জন।
মৃতের হিসেবে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে স্পেন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩৩ হাজার ৮৯ জনের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২১৮২ জনের।
স্পেনের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইরান। দেশটিতে ২৩ হাজার ৪৯ জন আক্রান্তের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৮১২ জনের। যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছে ৩৫ হাজার ৭০ জন মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ৪৫৮ জনের। এমন পরিস্থিতিতে মার্কিনিদের ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।।
ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের নেতৃত্ব গঠিত হোয়াইট হাউস করোনা ভাইরাস টাস্ক ফোর্সের এক কর্মী ওই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এরপর মাইক পেন্স ও তার পরিবারের করোনা ভাইরাস এর জন্য পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরীক্ষায় তাদের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি।
বাংলাদেশে নতুন করে আরও ছয় জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত রোগী ৩৩ জন। নতুন ছয় রোগীর মধ্যে পুরুষ তিন জন, নারী তিন জন। মোট মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের।
প্রতিবেশী দেশ ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪২৫ জন। এর মধ্যে প্রাণ হারিযেছেন ৮ জন। আর পাকিস্তানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮০৪ জন। তার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন