বিশ্ব যুব অ্যাথলেটিকসে বাংলাদেশের জহিরের চমক

আপডেট: জুলাই ১৩, ২০১৭, ১:০১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বাংলাদেশের অ্যাথলেট জহির চমকে দিলেন বিশ্ব যুব অ্যাথলেটিকসে

‘সেরাটা দিয়ে সেমিফাইনালে উঠতে চাই’-ঢাকা ছাড়ার আগে বলেছিলেন জহির রায়হান। কেনিয়ায় বিশ্ব যুব অ্যাথলেটিকসে কথা রেখেছেন তিনি। গতকাল নাইরোবিতে ৪০০ মিটারে দৌড়ে হিটের সেমিফাইনালে উঠেছেন ১৭ বছর বয়সি অ্যাথলেট।
বিকেএসপির এই অ্যাথলেট দৌড়েছেন এক নম্বর হিটে। সময় নিয়েছেন ৪৮.০০ সেকেন্ড। ওই হিটের আটজনের মধ্যে তৃতীয় হয়ে সেমিতে উঠেছেন শেরপুরের তরুণ। জহিরের সঙ্গে দৌড়েছেন উসাইন বোল্টের দেশ জ্যামাইকার অ্যান্থনি কক্স। তিনি ৪৬.৫৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হয়ে ওঠেন সেমিফাইনালে।
এর আগে ১৯৯৮ মস্কো বিশ্ব যুব গেমসে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে সেমিফাইনালে উঠেছিলেন সাবেক অ্যাথলেট এবং জহিরের কোচ আবদুল্লাহ হেল কাফি। বাংলাদেশের রুগ্ণ অ্যাথলেটিকসে অনেক দিন পর জহিরের এমন ফল একটা বড় চমক। অনেক বছর ধরে দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে আন্তর্জাতিক গেমসে প্রাথমিক হিটে বাদ পড়াটা অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেছেন বাংলাদেশের অ্যাথলেটরা।
সর্বশেষ ভারতের ভুবনেশ্বরে গত সপ্তাহে শেষ হওয়া এশিয়ান ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডেও দেখা গেছে বাংলাদেশের অ্যাথলেটদের এই পরিণতি। সেদিক দিয়ে ব্যতিক্রম জহির। ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় জহিরের পারফরম্যান্সই আশাবাদী করে তোলে কোচ আবদুল্লাহ হেল কাফিকে। গত বছর জাতীয় জুনিয়র মিটে দ্বিতীয়বার অংশ নিয়েই ২০০ মিটারে রেকর্ড গড়েন জহির। গত মে মাসে থাইল্যান্ডে ক্যারিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক আসর এশিয়ান যুব অ্যাথলেটিকসে গিয়ে ২০০ মিটারে ভালো করতে পারেন নি। তবে ৪৯.১২ সেকেন্ডে দৌড়েই পেয়ে যান কেনিয়ায় যুব বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের টিকিট। কেনিয়া থেকে মুঠোফোনে উচ্ছ্বসিত জহির বলছিলেন, ‘নিজের পারফরম্যান্সে খুব খুশি। প্রত্যাশার চেয়ে অনেক ভালো করেছি এখানে। তবে সেমিফাইনালেই থেমে থাকতে চাই না। ফাইনালে দৌড়াতে চাই।’
সেমিফাইনালে কী লক্ষ্য নিয়ে নামবেন? আমি হিটে ক্যারিয়ারের সেরা টাইমিং করেছি। সেমিফাইনালে আরও জোরে দৌঁড়াতে চাই, আরও ভালো টাইমিং করতে চাই। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন -বলেন শেরপুরের এ যুবক।
জহির রায়হান যুব বিশ্ব অ্যাথলেটিক চ্যাম্পিয়নশিপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিলেন গত মে মাসে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এশিয়ান যুব চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে উঠে। তখন তার টাইমিং ছিল ৪৯.১২ সেকেন্ড। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি সময় নিয়েছেন ৪৮.০০ সেকেন্ড। নাইরোবিতে জহিরের হিট থেকে প্রথম হয়েছেন জ্যামাইকার অ্যান্থনি কক্স। তিনি সময় নিয়েছিলেন ৪৬.৫৩ সেকেন্ড। সব হিট মিলিয়ে কম সময়ও তার।
জহির হয়েছেন হিটের নিজ গ্রুপে তৃতীয়। সেমিফাইনালে ওঠা ২৬ প্রতিযোগীর মধ্যে তার অবস্থান ১৪ তম। জহিরের গ্রুপ থেকে চতুর্থ হয়ে সেমিফাইনালে উঠেছেন দক্ষিণ এশিয়ার আরেক অ্যাথলেট শ্রীলঙ্কার থিরান পাথিরানাহালাগে। তার টাইমিং ৪৮.৭২ সেকেন্ড।-প্রথম আলো অনলাইন ও জাগোনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ