বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন! বিস্ফোরক অভিযোগ বাবর আজমের বিরুদ্ধে

আপডেট: নভেম্বর ২৯, ২০২০, ৩:২৯ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


পাকিস্তানের ক্রিকেট মহলে হুলুস্থুল কাণ্ড। যৌন হেনস্তা, শারীরিক নির্যাতন, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে একের পর এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ যুবতীর। পুলিশে জানিয়ে কোনও উপকার না হওয়ায় বাবরের যাবতীয় ‘কেচ্ছা’ ফাঁস করতে রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠক করলেন তিনি। যার জেরে প্রশ্নের মুখে পড়ে গেল পাক ক্রিকেটের উজ্বলতম তারকার ক্রিকেট কেরিয়ার।
এমনিতে, বাবর আজম এই মুহূর্তে পাকিস্তানের তো বটেই গোটা বিশ্বের অন্যতম প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের মধ্যে একজন। কিন্তু কেরিয়ারের মধ্যগগনেই তাঁর বিরুদ্ধে উঠল বিস্ফোরক অভিযোগ। শনিবার এক যুবতী, যিনি কিনা বাবরকে নিজের স্কুলের সময়ের বন্ধু বলে দাবি করেছেন, পাকিস্তান অধিনায়কের বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন। ওই যুবতীর দাবি, বাবর বছরের পর বছর তাঁকে ব্যবহার করেছেন, নিজের যাবতীয় খরচের টাকা নিয়েছেন, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করেছেন। এমনকী বাবরের সঙ্গে সহবাসের পর নারী নাকি অন্তঃসত্তাও হয়েছিলেন।
ওই নারী বলছেন, পাকিস্তানের তারকা ব্যাটসম্যানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক সেই ২০১০ সাল থেকে। তখনও বাবরের এত খাতি ছিল না। স্কুলে পড়াকালীনই বাবর তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন। এমনকী, তাঁরা পালিয়ে বিয়ে করার সিদ্ধান্তও নেন। কিন্তু এরই মধ্যে জাতীয় দলে ডাক পেয়ে যান বাবর। এবং খ্যাতির শিখরে পৌঁছতেই বেঁকে বসেন। নারীকে নাকি এই ঘটনা প্রকাশ্যে না আনার জন্য চাপ দেওয়া হত। মারধর করা হত, এমনকী, খুনের হুমকিও দেওয়া হয়েছে বলে দাবি নারীর।
এ বিষয়ে বাবর আজমের কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও মেলেনি। তিনি এই মুহূর্তে নিউজিল্যান্ডে। পাক দলের বাকি সদস্যদের সঙ্গে কোয়ারেন্টাইনে আছেন। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষ হলেই কিইয়িদের বিরুদ্ধে টেস্ট ও ট-২০ খেলার কথা পাক দলের।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন