বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম লালের মৃত্যুতে শোক

আপডেট: জুন ২০, ২০২৪, ১০:১৪ অপরাহ্ণ


সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:


নগরীর কাদিরগঞ্জ রাজারহাতা মহল্লা নিবাসী রাজশাহী মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সহকারী কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম বুধবার (১৯জুন) সকাল সাড়ে ১১টায় আকস্মিক হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যু বরণ করেন (ইন্নাল্লিাহ……. রাজেউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বৎসর। মৃত্যুকালে তিনি ১স্ত্রী, ২ কন্যা ও ১ পুত্র সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে যান। বুধবার বিকেল ৫.৩০ মিঃ মালোপাড়া শাহী মসজিদ সংলগ্ন ফাঁকা রাস্তায় মরহুমের প্রতি রাষ্ট্রীয় গার্ড অব অনার প্রদান করা হয় হয়।

রাজশাহী জেলা প্রশাসনের পক্ষে এডিসি (শিক্ষা ও আইসিটি) মাইনুল ইসলামের উপস্থিতিতে আব্দুস সালাম পুলিশ অফিসারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গার্ড বাহিনী মরহুমের প্রতি উক্ত রাষ্ট্রীয় সালাম প্রদর্শন করেন এবং মরহুমের কফিনে জাতীয় পতাকায় আচ্ছাদিত করে পুষ্পার্ঘ অর্পন করেন জেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ রাজশাহী জেলা ও মহানগর কমান্ড। এ সময় রাজশাহী মহানগর কমান্ডার/২০১৪ বীরমুক্তিযোদ্ধা ডা. আব্দুর মান্নানের নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল,

জেলা সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ও মুক্তিসংগ্রাম পরিষদ মুক্তিযুদ্ধ’৭১ (কানপাড়া) সংগঠক বীরমুক্তিযোদ্ধা কে.এম.এম. ইয়াছিন আলী মোল্লা, রাজশাহী মহানগর বঙ্গবন্ধু পরিষদের নেতা কবিকুঞ্জের সভাপতি লেখক, সাহিত্যিক ও কবি বীরমুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন প্রামানিক, রাজশাহী মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা নূরুল ইসলাম মতিন, মহানগর কমান্ডের সহকারী কমান্ডারগণ/২০১৪ বীরমুক্তিযোদ্ধা বজলুর রহমান, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মোমিন কাজল, বীরমুক্তিযোদ্ধা মাহমুদ হাসান সিরাজী, বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম রসুল, বীরমুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক নেতা- তৈয়বুর রহমান ও বীরমুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক আবুল বাশার ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদের শোকবার্তা: ১৯৭১ মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে ৭নং সেক্টরে স্বশস্ত্র লড়াইয়ে বীরত্বের সাথে যুদ্ধে অংশ গ্রহণকারী বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ ও শোক সন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে পত্র-পত্রিকায় যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন। বিবৃতি দাতারা হলেন: রাজশাহী অঞ্চলের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এমপিএ’৭০ ও সাবেক মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাডঃ আব্দুল হাদী, যুদ্ধকালীন কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধালীগ রাজশাহী জেলা সভাপতি-বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাডঃ আব্দুস সামাদ,

কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিরের নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাডঃ মতিউর রহমান (BLF), জেলা ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার/২০১৪ বীরমুক্তিযোদ্ধা শাহাদুল হক মাষ্টার, ডেপুটি কমান্ডার/২০১৪ বীরমুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হোসেন, দপ্তর কমন্ডার/২০১৪ বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সাত্তার, জেলা প্যানেল ডেপুটি কমান্ডার/২০১৪ বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা সেনা অফিসার (অব.) আবুল হাসান খন্দকার ও মনিরুজ্জামান উজ্জল, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চের নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড জেলা সভাপতি মাহমুদ হাসান ফয়সাল ও সেক্রেটারী কামরুল হাসান মিঠু এবং বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তান বাস মালিক ও সড়ক পরিবহন সমিতির নেতা সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ