বুরুন্ডির কাছে উড়ে গেল মরিশাস

আপডেট: জানুয়ারি ১৭, ২০২০, ১:২৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ফ্লাইট জটিলতার কারণে ঢাকায় পৌঁছাতে দেরি হয়েছে বুরুন্ডির। বুধবার ঢাকায় এসে অনুশীলন না করেই গতকাল তাদের মাঠে নামতে হয়েছে। তবে মাঠের খেলায় তাদের ভ্রমণক্লান্তি কিন্তু চোখে পড়েনি। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বুরুন্ডি পেয়েছে বড় জয়। ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে মরিশাসকে। অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করেছেন বুরুন্ডির ফরোয়ার্ড শিমিরিমানা জসপিন।
বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ‘বি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে শুরুতে অবশ্য এগিয়ে গিয়েছিল মরিশাস। ম্যাচের মাত্রই তিন মিনিটেসময় সতীর্থের থ্রু থেকে মরিশাসকে এগিয়ে নেন আদ্রিন ফ্রাঙ্কোস । ২৬ মিনিটেই অবশ্য সমতা ফিরিয়ে আনে বুরুন্ডি। বেঞ্জামিনের পাসে বক্সে ঢুকে নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন জসপিন। আক্রমণ অব্যাহত রেখে ৪১ মিনিটে এগিয়ে যায় বুরুন্ডি। ডানদিক থেকে দারুণ ফ্রি-কিকে লক্ষ্যভেদ করেন দিকুমানা আসম্যান।
এগিয়ে থেকে বিরতির পর বুরুন্ডির আক্রমণ অব্যাহত থাকে।দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেয় তারা। সতীর্থের লব ধরে লক্ষ্যভেদ করেন জসপিন। ম্যাচ শেষ হওয়ার চার মিনিট আগে জসিপন আরেকটি দুর্দান্ত গোলে নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন।
হ্যাট্রটিক করে ১৮ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড উচ্ছ্বসিত, ‘জাতীয় দলের হয়ে আমার প্রথম মাঠে নামা। প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিক করে বেশ ভালো লাগছে। সামনের ম্যাচেও গোল করতে চাই।এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার ইচ্ছা আছে। আর আমার স্বপ্ন হলো ইউরোপিয়ান লিগে খেলা।’
দলের কোচ বিপফুবুসা জসলিন বলেছেন,‘ক্লান্তি নিয়ে আমরা ম্যাচ খেলেছি। তবে মাঠের খেলাতে আমরা এর প্রভাব বুঝতে দিইনি। আমাদের লক্ষ্য ট্রফি জয়।’
মরিশাসের কোচ ফ্রান্সিসকো ফিলহো পরের ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াতে চায়,‘পরের ম্যাচে আমরা জিতে নকআউট পর্বে যেতে চাই।অনভিজ্ঞতার কারণেই আগে গোল দিয়েও ম্যাচ জিতে পারিনি।’