বেসরকারি স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের বৈশাখী ভাতার দাবি

আপডেট: এপ্রিল ১২, ২০১৭, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



বৈশাখী ভাতা ও বাৎসরিক শতকরা ৫ ভাগ বর্ধিত বেতনের দাবিতে দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে নানা কর্মসূচি পালন করেছে বেসরকারি স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরা। গতকাল মঙ্গলবার পৃথকভাবে মানববন্ধন, সমাবেশ, বিক্ষোভ মিছিলসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। কর্মসূচিতে বৈশাখী ভাতা না পেলে ১লা বৈশাখে কালো ব্যাজ ধারণ এবং আগামীতে বৃহত্তরা আন্দোলনের হুমিক দিয়ে এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর- চাঁপাইনবাবগঞ্জ : এদিন সকাল সাড়ে ১০টা হতে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত আবদুল মান্নান সেন্টু মার্কেটের সামনে জাতীয় শিক্ষক-কর্মচারী ফ্রন্ট জেলা শাখার আয়োজনে কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কলেজ শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, বালুগ্রাম আদর্শ ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান, রানীহাটি কলেজের অধ্যক্ষ আবুল বাসার, বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক সোহরাব আলী, অধ্যক্ষ আতিকুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তারা অবিলম্বে দেশের বেসরকারি শিক্ষা ব্যবস্থাকে জাতীয়করণ, চিকিৎসা ভাতা, বাড়ি ভাড়া ও বৈশাখী ভাতা দেয়ার দাবি জানান।
নাটোর : এদিন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের মাদাসা মোড় এলাকায় শিক্ষক-কর্মচারী ফ্রন্টের ব্যানারে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য দেন সংগঠনের জেলাশাখার সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী, গোলাম মোস্তফা, আবদুল আলিমসহ শিক্ষক নেতৃবৃন্দ। এসময় বক্তারা বৈশাখী উৎসব ভাতা ও বাৎসরিক শতকরা ৫ ভাগ বর্ধিত বেতনের দাবি জানান।
সিংড়া : এদিন দুপুর ১২টায় উপজেলা কোর্ট মাঠে বাকশিস সিংড়া উপজেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মুনসুর রহমান মুকুলের সভাপতিত্বে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বিলহালতি ত্রিমোহনী কলেজের অধ্যক্ষ মোকসেদ আলী প্রামানিক, চলনবিল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ গোলাম মহিউদ্দিন টিপু, কলম ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম, রহিম উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল আওয়াল, অধ্যক্ষ ইসমাইল হোসেন, অধ্যাপক শারফুল ইসলাম মান্নান প্রমুখ। সভায় বক্তারা, বৈষম্য দূর, বৈশাখী ভাতা, বেসরকারি কলেজগুলো জাতীয়করণ, ননএমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিও প্রদানের দাবি জানান।
বড়াইগ্রাম : উপজেলা শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্যফন্টের আয়োজনে বনপাড়া পৌরচত্বরে উপজেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে অধ্যক্ষ আবদুর রাজ্জাক মোল্লার সভাপতিত্বে একটি সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শিক্ষকরা উপজেলা পরিষদ চত্বরে সমাবেত হয়। সেখানে শিক্ষকদের দাবির সাথে একাত্বতা ঘোষণা করে বক্তৃতা করেন ইউএনও ইশরাত ফারজানা। এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন অধ্যক্ষ বারেন্দ্র নাথ মিত্র, মোহাম্মদ তুঘলক, লুৎফর রহমান, ইসাহাক আলী, প্রধান শিক্ষক ওয়াছেক আলী সোনার, আবদুল কাদের, নাজমা রহমান, শিবদাস সান্যাল, সরোয়ার হোসেন প্রমুখ। এসময় বক্তরা বৈশাখী ভাতা না পেলে ১লা বৈশাখে কালো ব্যাজ ধারণ এবং আগামীতে বৃহত্তরা আন্দোলনের হুমিক দিয়ে এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।