বেড়েছে চাল ও মাছ-মাংসের দাম

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৭, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


বাজারে সবজির মাছের দাম অপরিবর্তীত থাকলেও বেড়েছে মাছ-মাংস ও চালের দাম। গত সপ্তাহের তুলনায় প্রতি কেজি চালের দাম বেড়েছে দুই থেকে তিন টাকা। আর মাংসের দাম বেড়েছে প্রতিকেজিতে বেড়েছে ১০ থেকে ২০ টাকা আর সপ্তাহের ব্যাবধানে মাছের বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা এমনটি বলছেন বিক্রেতারা।
বাজারে প্রতিকেজি স্বর্ণা মোটা চাল গত সপ্তাহে ছিল ৩৩ টাকা এ সপ্তাহে দুই টাকা বেড়ে ৩৫ টাকা, স্বর্ণা চিকন চাল গত সপ্তাহে ছিল ৩৮ টাকা এ সপ্তাহে দুই টাকা বেড়ে ৪০ টাকা, আউশ চাল গত সপ্তাহে ছিল ৪২ টাকা এ সপ্তাহে ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা, মিনিকেট চাল গত সপ্তাহে ছিল ৪৬ টাকা এ সপ্তাহে ৪৮ টাকা ও  ৪৮ টাকার মিনিকেট ৫০ টাকা, চিনি আতপ চাল (পোলাও) ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে বলে নগরীর সাহেববাজারের এপি চাল ভান্ডারের মালিক মিলন জানান। তিনি বলেন, চালের দাম কমতে পারে।
চাল কিনতে আসা সাইদুর রহমান নামের এক ব্যক্তি বলেন, গত সপ্তাহে চালের দাম কম ছিল। এ সপ্তাহে দুই থেকে তিন টাকা বেড়েছে। এভাবে চালের দাম বাড়তে থাকলে খেটে খাওয়া মানুষদের কষ্টে দিন কাটাতে হবে।
অন্যদিকে অপরিবর্তীত রয়েছে সবজির দাম। বাজারে প্রতিকেজি দেশি করলা বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা, হায়ব্রিড ৪০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ২০ থেকে ২৫ টাকা,  কচুর লতি ২৫ টাকা, বেগুন ১৬ আর কাটা ৩০ টাকা, সিম হায়ব্রিড ২০ ও দেশী ৩০ টাকা, শশা ২০ টাকা, গাজর ২০, ফুলকপি ১৬, পাতা কপি প্রতিটি ১২ থেকে ১৪ টাকা, আলু সাদা ১০, লাল ১৪ ও দেশী ১৬ টাকা পেয়াজ ২০, রসুন পুরানো ২৪০ নতুন ১৪০, লাল শাক ২০, লাউ প্রতিটি ২০ টাকা, দেশি টমেটো ৪০ ও হায়ব্রিড ২৪ টাকা, কাঁচা কলা প্রতি হালি ১৬ থেকে ২০ টাকা, লেবু প্রতি হালি ৮ থেকে ১০ টাকা।
বিনদপুর বাজারের সবজি বিক্রেতা এনামুল হক বলেন, শীতের সবজির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে শীত কমলে সবজীর দাম বাড়তে পারে। সবজি কিনতে আসা আবদুর রাজ্জাক বলেন, বেশ কিছু সবজির দাম এক টাকা থেকে দুই টাকা বেশি মনে হচ্ছে। তবে বেশির ভাগ সবজির দাম আগের মতই আছে। এর মধ্যে নতুন হিসেবে বেশি বেড়েছে দেশি করলার দাম।
এদিকে গরু ও খাসির মংসের দাম বেড়ে কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। প্রতিকেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৪৪০ থেকে ৪৫০ টাকা। আর খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৫৪০ থেকে ৫৫০ টাকা। আর স্বাভাবিক রয়েছে মুরগির বাজার। গত সপ্তাহের মতই এই সপ্তাহে মুরগির বাজার একই রয়েছে বলে জানান বিক্রেতারা।
সাহেব বাজার মাছের আড়তের মাছ বিক্রেতা আবদুল মোমিন বলেন, বেশির ভাগ মাছের দাম বেড়েছে। গত সপ্তাহের তুলনায় বাজারে মাছের দাম প্রতি কেজিতে বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। বাজারে গত সপ্তাহের তুলনায় মাছের দাম বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। বাজরে পুকুরের মাছে বিক্রি হচ্ছে, রুই মাছ ৫ কেজি ওজনে ৪৫০ থেকে ৪৮০ টাকা ও ছোট রুই ২৫০ থেকে ২২০ টাকা, বড় কাতল ৪২০ ও ছোট কাতল ২২০ থেকে ২৫০ টাকা, মিরকা বড় ২২০ ও ছোট ১৬০ টাকা, সিলভার ১৮০ থেকে ১২০, গ্লাসকাপ বড় ২০০ ও ছোট ১৫০ টাকা।
অন্যদিকে নদীর মাছ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি পবা ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, পাতাসী ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, বাশপাতা ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, ময়া ৩৬০ থেকে ১ হাজার ৩৮০ টাকা, টেংড়া ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, বাইম মাছ ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা। এক কেজি ৫০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৬০০ টাকা ও ৭০০ গ্রামের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৮০০ টাকা দরে। সাহেব বাজার এলাকায় মাছ কিনতে আসা শহীদুল ইসলাম বলেন, বেড়েছে কিছটু মাছের দাম। আমি ইলিশ মাছ কিনলাম ৭০০ গ্রাম ওজনের ৮০০ টাকা। আর ছোট টেংড়া ৪০০ টাকা কেজি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ