বোমাতঙ্কে পদপিষ্ট ৬০০ জুভেন্তাস অনুরাগী

আপডেট: জুন ৫, ২০১৭, ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


রিয়েল মাদ্রিদ বনাম জুভেন্তাস, শনিবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ম্যাচ ঘিরে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। কিন্তু বোমাতঙ্কের জেরে পিয়াজা সান কার্লোতে লাইভ ম্যাচ দেখতে গিয়ে আহত হলেন প্রায় ৬০০ অনুরাগী। আহতদের মধ্যে বেশিরভাগই জুভেন্তাস অনুরাগী। স্থানীয় পুলিশ সূত্রে খবর, ম্যাচ শেষ হওয়ার ১০ মিনিট আগে সান কার্লো পিয়াজা চত্বরে বাজি ফাটানো হচ্ছিল। সেই সময় সেখানে বোমা রাখা আছে বলে গুজব ছড়ায়। তাতেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। হাজার হাজার মানুষ চিৎকার–চেঁচামেচি জুড়ে দেন। পিয়াজা সান কার্লোস স্কয়্যার থেকে বেরনোর জন্য ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়। বেরনোর পথে ধাক্কাধাক্কিতে কাঁচের দেওয়াল ভেঙে নীচে পড়ে যান কয়েক জন। পদপিষ্ট হন শতাধিক মানুষ। বিপদ আঁচ পেয়ে সান কার্লোস স্কয়্যার খালি করে দেয়া হয়। শুরু হয় তল্লাশি।  কিন্তু তাড়াহুড়োতে দর্শকের ফেলে যাওয়া জুতো, জলের বোতল  ছাড়া কিছুই মেলেনি। তুরিনের স্থানীয় পুলিশ আধিকারিক রেনাতো সাকোনে জানিয়েছেন, ‘বোমাতঙ্কের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে। তবে সামান্য বাজি থেকে বোমার গুজব ছড়াল কীভাবে তা জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে।’ এই ঘটনার সঙ্গে ১৮৮৫ সালের হেজেল কা-ের তুলনা টেনেছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। সেবার লিভরপুলের বিরুদ্ধে ইউরোপিয়ান কাপের ফাইনাল ম্যাচ শুরুর আগে দেওয়াল ভেঙে পড়ে ৩৯ জন অনুরাগীর মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে বেশিরভাগই ইটালির ভক্ত ছিলেন।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ