বোমা তৈরি করতে গিয়ে কব্জি গেল যুবকের

আপডেট: নভেম্বর ৬, ২০১৬, ১২:১২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



রাজশাহীর পুঠিয়ায় বোমা তৈরি করার সময় বিস্ফোরণে জাহিদ আলী (২৭) নামে এক যুবকের দুই হাতের কব্জি উড়ে গেছে। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার তাড়াস বেলপুকুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় জাহিদকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
হাসপাতাল পুলিশ বক্সের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) এমদাদুল হক বলেন, হাসপাতালে আনার পর আহত যুবক তাকে জানিয়েছেন, তার নাম জাহিদ এবং বাড়ি চারঘাট উপজেলা সদরে। এর বেশি কিছু তিনি বলতে পারেননি।
এমদাদুল হক জানান, রাত সোয়া ৯টার দিকে চারঘাট থানার একজন পুলিশ সদস্য একটি ভটভটি টেম্পুতে করে জাহিদকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান। জাহিদের দুই হাতের কব্জি উড়ে গেছে। এছাড়া ডান চোখও ঝলসে গেছে। গুরুতর জখম রয়েছে বুকসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে।
ভটভটি টেম্পুর চালক সাকিব আলী (২২) জানান, তাড়াস গ্রামের সাদিকুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে জাহিদকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হয়েছে। স্থানীয়রা বলছেন, রাতে ওই বাড়িতে বিকট শব্দে একটি বোমার বিস্ফোরণ হয়। এ সময় ওই বাড়ি থেকে আহত জাহিদ ছাড়া সবাই পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।
পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, ‘শুনেছি বোমা তৈরি করতে গিয়ে বিস্ফোরণ ঘটেছে। এতে একজন আহত হয়েছে। আমরা ধারণা করছি, কোনো উগ্রবাদী সংগঠনের ক্যাডাররা সংগঠিত হয়ে বোমা তৈরি করছিল। ঘটনাস্থলে পুলিশ আছে। আলামত উদ্ধার করা হচ্ছে।’