বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

ব্যাংকগুলোকে মাতৃত্বকালীন ছুটির ভিন্নতা পরিহারের নির্দেশ

আপডেট: January 13, 2020, 12:28 am

সোনার দেশ ডেস্ক


নারী কর্মীদের মাতৃত্বকালীন ছুটির বিধানাবলী প্রয়োগে ভিন্নতা পরিহার করতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়। সার্কুলারে সরকারি-বেসরকারি সব ব্যাংকের নারী কর্মীদের সরকারি বিধি অনুযায়ী ৬ মাস মাতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
এতে বলা হয়েছে, ২০১৩ সালে বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছিল। এরপরও ব্যাংকগুলো মাতৃত্বকালীন ছুটি নির্দেশনা যথাযথভাবে পালন করছে না। ব্যাংকিং খাতে মাতৃত্বকালীন ছুটির বিধানাবলী প্রয়োগে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হচ্ছে বলেও নির্দেশনায় মন্তব্য করা হয়েছে।
সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো ওই সার্কুলারে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, ব্যাংকের সব পর্যায়ের নারী কর্মীরা ছয় মাস মাতৃত্বকালীন ছুটি পাবেন। চাকরিজীবনে একজন স্থায়ী বা অস্থায়ী কর্মী ২ বার এ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। এই সময়ে তাদের স্বাভাবিক বেতন-ভাতা দিতে হবে। ছুটির কারণে কারও বার্ষিক কর্মমূল্যায়নেও অবনমন করা যাবে না।
সার্কুলারে আরও বলা হয়, কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ, উন্নয়ন ও অগ্রগতি সামগ্রিকভাবে জাতীয় উন্নয়নের অন্যতম নিয়ামক। বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নে বিভিন্ন কার্যক্রম গৃহীত হয়েছে। ফলে ব্যাংকিংসহ বিভিন্ন পেশায় নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধি ও শিক্ষাসহ নারী উন্নয়নের বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জিত হয়েছে। এ জন্য সরকারের মাতৃত্বকালীন ছুটি সংক্রান্ত বিধিমালার আলোকে সব ব্যাংককে নারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য নীতিমালা অনুসরণের করতে হবে।
সার্কুলারে আরও বলা হয়েছে, মাতৃত্বকালীন ছুটির মেয়াদ হবে ছয় মাস। চাকুরির মেয়াদ নির্বিশেষে সকল স্থায়ী ও অস্থায়ী নারী কর্মকর্তা-কর্মচারী এই ছুটি পাবেন। চাকরিজীবনে একজন নারী কর্মকর্তা-কর্মচারী সর্বোচ্চ ২ বার এ ছুটি ভোগ করতে পারবেন। মাতৃত্বকালীন ছুটি অন্য কোনও ছুটির সঙ্গে সমন্বয় করা যাবে না। মাতৃত্বকালীন ছুটির সময়ে সংশ্লিষ্ট নারী কর্মকর্তা-কর্মচারী স্বাভাবিক বেতন-ভাতাদি প্রাপ্য হবেন। মাতৃত্বকালীন ছুটির বিষয়ে উত্থাপিত বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সরকারি বিধানাবলী অনুসৃত হবে। নারী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের মাতৃত্বকালীন ছুটি ভোগের বছরে তাদের বার্ষিক কর্মমূল্যায়নের ক্ষেত্রে পূর্ববর্তী বছরের কর্মমূল্যায়ন অথবা পূর্ববর্তী তিন বছরের বার্ষিক কর্মমূল্যায়নের গড়ের মধ্যে যেটি অধিকতর উত্তম তা বিবেচনায় নিতে হবে।
প্রসঙ্গত, সরকারি কর্মজীবী নারীরা ২০১১ সালের ৯ জানুয়ারি থেকে মাতৃত্বকালীন ছুটি ছয় মাস পাচ্ছেন। আগে তারা ছুটি পেতেন চার মাস।