ব্যাগিং পদ্ধতিতে আম চাষে মাঠ দিবস

আপডেট: জুন ১৭, ২০১৭, ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহীর পবায় ফল ব্যাগিং পদ্ধতিতে আমের মাছি পোকা দমন শীর্ষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলা হড়গ্রাম ইউনিয়ন হলরুমে এ মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।
মাঠ দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, এ দেশের জনপ্রিয় ও পুষ্টি সমৃদ্ধ ফল আম। দেখা গেছে, পোকা-মাকড় বিশেষ করে মাছি পোকার আক্রমণ প্রায় ৪০ থেকে ৬০ ভাগ আমই নষ্ট হয়ে খাওয়ার অযোগ্য হয়ে পড়ে। পোকার আক্রমণ থেকে আমকে রক্ষা করতে বহুজাতিক কোম্পানির কীটনাশক নির্বিচারে স্প্রে করা হয়। যা পরিবেশ ও স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি। ব্যাগিং পদ্ধতি করলে একদিকে পোকা-মাকড় থেকে রক্ষা পাবে ফল এবং অন্যদিকে পরিবেশ ও স্বাস্থ্যের ক্ষতি হবে না। পাশাপাশি আম চাষে আর্থিকভাবে লাভবান হবে।
ইউএসএআইডি’র সাহায্যে আইপিএম আইএল প্রোজেক্ট সাইট’র আর্থিক সহযোগিতায় এবং উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের কীটতত্ব শাখার আয়োজনে অনুষ্ঠিত মাঠ দিবসে সভাপতিত্ব করেন, হড়গ্রাম ইউপি’র চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক মহাপরিচালক ও আইপিএম আইএল প্রোজেক্ট বাংলাদেশ সাইটের কোঅর্ডিনেটর ইউসুফ মিঞা।
বিশেষ অতিথি ছিলেন, জয়দেবপুর বারি প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শাহাদৎ হোসেন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ আম গবেষণা কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন।
আলোচনা শেষে কৃষকদের বারি উদ্ভাবিত ফল ব্যাগিং পদ্ধতিতে আমে মাছি ও পোকা দমন পদ্ধতি প্রত্যক্ষভাবে দেখানো হয়। এরে ফলে কৃষকরা উৎসাহিত হন। কৃষক-কৃষাণিরা আম বিষমুক্ত করতে ব্যাগের দাম বেশিতে আপত্তি জানান এবং তারা ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে সহজলভ্যতার কথা বলেন। অনুষ্ঠানে শতাধিক কৃষাণ-কৃষাণি ও উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ