ব্যাট হাতে আত্মসমর্পণের পর বোলারদের লড়াই

আপডেট: জানুয়ারি ১৬, ২০২০, ১:১০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হার এড়াতে পারেনি বাংলাদেশ (ফাইল ছবি)

ভাগ্যিস জোহানেসবার্গে কোনও ম্যাচ নেই আকবর-হৃদয়দের। কে জানে, তাহলে হয়তো আজকের মতো অবস্থা হতো বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটারদের!
অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ লড়াই করেছিল লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা, টাই করেছিল অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে। কিন্তু গতকাল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটসম্যানরা দাঁড়াতেই পারেননি। তবে বোলাররা দলকে বড় হারের লজ্জায় পড়তে দেননি।
জোহানেসবার্গের সেন্ট জন্স কলেজ মাঠে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ, ২৩ রানে হারিয়ে ফেলে ৫ উইকেট। প্রান্তিক নওরোজ, মাহমুদুল হাসান আর শাহাদাত হোসেন রান করতেই পারেননি।
ষষ্ঠ উইকেটে তৌহিদ হৃদয় ও অধিনায়ক আকবর হোসেন ৫৭ রানের জুটি গড়লেও লাভ হয়নি। তৌহিদ ৩৬ আর আকবর ২৩ রান করে বিদায়ের পর একা প্রতিরোধ গড়েছেন শামীম হোসেন (২০)। কিন্তু অন্যদের ব্যর্থতায় ২৯ ওভারে মাত্র ১১২ রানে শেষ বাংলাদেশ। জোয়ি ফিল্ড চারটি এবং আদিত্য অশোক নিয়েছেন তিন উইকেট।
সামান্য পুঁজি নিয়েও বাংলাদেশ দারুণ লড়াই করেছে বল হাতে। ১৬ রানে উদ্বোধনী জুটি ভেঙে যায় নিউজিল্যান্ডের। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৩২ রান ওঠার পর অনিয়মিত পেসার তানজিদ হাসান তামিমকে নিয়ে আসেন অধিনায়ক আকবর। আর শুরুতেই তামিমের চমক, দ্বিতীয় বলেই বোল্ড করে দেন ফার্গুস লেলম্যানকে।
তামিম আরও ২ উইকেট নিলেও বাংলাদেশ জিততে পারেনি। অধিনায়ক জেসি ট্যাশকফের অপরাজিত ৪১ রান কিউইদের ৪ উইকেটের জয় এনে দিয়েছে।
৩০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে তামিম দলের সেরা বোলার। রাকিবুল হাসান দুটি এবং শরিফুল ইসলাম নিয়েছেন এক উইকেট।
এটাই ছিল বাংলাদেশের শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ। বিশ্বকাপে আকবরদের প্রথম ম্যাচ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, ১৮ জানুয়ারি। ২১ জানুয়ারি স্কটল্যান্ড আর ২৪ জানুয়ারি পাকিস্তানের সঙ্গে লড়াই। তিনটি ম্যাচই হবে পচেফস্ট্রুমে।