ব্রিটিশ কমেডিয়ানের ‘ঈশ্বরদ্রোহী’ মন্তব্যের তদন্ত

আপডেট: মে ৯, ২০১৭, ১:০৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ব্রিটিশ কমেডিয়ান স্টিফেন ফ্রাই এক টিভি অনুষ্ঠানে ‘ঈশ্বরদ্রোহী’ মন্তব্য করেছেন – এক দর্শক এমন অভিযোগ করার পর আয়ারল্যান্ড প্রজাতন্ত্রের পুলিশ এর তদন্ত শুরু করেছে।
২০১৫ সালে আরটিই টিভিতে প্রচারিত ওই অনুষ্ঠানে মি. ফ্রাই প্রশ্ন তুলেছিলেন, “একজন বদমেজাজি, সংকীর্ণমনা, নির্বোধ ঈশ্বর – যিনি অন্যায়-অবিচার ও বেদনায় ভরা একটা পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন – তাকে আমার সম্মান করতে হবে কেন?” পরে অবশ্য মি. ফ্রাই বলেছিলেন যে তিনি কোন বিশেষ ধর্মের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক কথা বলেন নি।
তবে এ নিয়ে দর্শকের অভিযোগ পাবার পর পুলিশ পরীক্ষা করে দেখছে, স্টিফেন ফ্রাই কোন ফৌজদারি অপরাধ করেছেন কিনা।
আইরিশ ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকায় এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালে করা মানহানি আইনে এখনো কোন ধর্মদ্রোহিতার মামলা করা হয় নি, এরকম কিছু হবে এ সম্ভাবনাও কম।
২০১৫ সালের অনুষ্ঠানটিতে মি ফ্রাইকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি স্বর্গের দরজায় দাঁড়িয়ে ঈশ্বরকে কি প্রশ্ন করবেন? জবাবে তিনি ওই মন্তব্য করেন।
তিনি আরো বলেছিলেন, “গ্রিক দেবতারা নিজেদের সর্বদ্রষ্টা বা সর্বজ্ঞ বলে উপস্থাপন করতেন না। কিন্তু যে ঈশ্বর এই পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন, যদি সত্যিই এটা তার কাজ হয়ে থাকে – তাহলে তিনি নিশ্চয়ই ছিলেন একজন ‘ম্যানিয়াক’, স্বার্থপর।”
আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠানটি প্রচারের দিনই একজন দর্শক এ নিয়ে অভিযোগ করেন। তিনি নাকি বলেছেন, তিনি নিজে এতে মর্মাহত না হলেও মি. ফ্রাইয়ের কথা ‘ঈশ্বরদ্রোহী’ বলে মনে করেন।
সে দেশের আইনেএর শাস্তি ২৫ হাজার ইউরো জরিমানা।
মি. ফ্রাইয়ের ওই মন্তব্যের ভিডিওটি ইউটিউবে আছে, এবং তা ৭০ লক্ষ বারেরও বেশি দেখা হয়েছে।- বিবিসি বাংলা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ