বড়াইগ্রামে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলায় নারীসহ আহত ৫

আপডেট: মার্চ ৮, ২০১৭, ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি



নাটোরের বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও ইউনিয়নের পারকোল গ্রামে ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে দুই বাড়িতে হামলা চালিয়ে দুই নারীসহ পাঁচজনকে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ইসমাইল হোসেন তার দলবল নিয়ে এ হামলা চালায়।
আহতদের মধ্যে বাবু মিয়ার স্ত্রী সালমা বেগম (২৮), আবদুল জলিলের স্ত্রী তাহমিনা বেগম (৩৫), জালাল উদ্দিনের ছেলে আবদুল জলিল (৪৩), বাকস মোল্লার ছেলে খলিল উদ্দিনকে (৩০) বড়াইগ্রাম হাসপাতালে এবং আজিজুল হককে (৪০) বনপাড়া পাটোয়ারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা সবাই অভিযুক্ত ইসমাইল হোসেনের প্রতিবেশী।
স্থানীয়রা জানায়, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ইসমাইল হোসেন তার দলবল নিয়ে হামলা চালায়। এসময় তারা ওই দুইটি বাড়িতেও ভাঙচুর করে। পরে অন্য প্রতিবেশীদের বাধার মুখে তারা পিছু হঠতে বাধ্য হয়।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইসমাইল হোসেনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায় নি। তবে ইসমাইল হোসেনের চাচা বকস মোল্লা বলেন, কোন অভিযোগ ছাড়াই ইসমাইল মেম্বারের নেতৃত্বে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।
এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহরিয়ার খান হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুই পক্ষ পরস্পর আত্মীয়। তারা নিজেরা বসে গতকাল সোমবার সন্ধায় মিমাংসা করে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তারা যদি নিজেরা আপোস করতে ব্যর্থ হয় তাহলে অভিযোগ নিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।