বড়াইগ্রামে চুরি ঠেকাতে রাত জেগে গ্রাম পাহারা

আপডেট: জুলাই ২৮, ২০২১, ৮:২০ অপরাহ্ণ

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি:


নাটোরের বড়াইগ্রামে রাত জেগে গ্রাম পাহারা দিচ্ছেন এলাকাবাসী।

নাটোরের বড়াইগ্রামে চোরের উপদ্রব বেড়ে যাওয়ায় চুরি ঠেকাতে রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন এলাকাবাসী। উপজেলার বড়াইগ্রাম পৌরসভা চকবড়াইগ্রাম এলাকায় গত দশদিন যাবৎ পাহারা দিচ্ছেন তারা। পুলিশ ইতোমধ্যে চোর সন্দেহে ১০ মাদকসেবীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। তবে চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার না হওয়ায় কাটছেনা আতঙ্ক।
এলাকাবাসী মোস্তাফিজুর রহমান বকুল বলেন, গত ১০ দিন আগে পর পর দুই রাতে এসিল্যান্ড আরিফুল ইসলামের বাড়িসহ পাঁচ বাড়িতে লোহার গ্রিল ও সিঁধ কেটে চুরির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরে চোর সন্দেহে দশজন মাদকসেবীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। তবুও চোর শনাক্ত বা খোয়া যাওয়া মালামাল উদ্ধার হয়নি। ফলে এলাকাবাসীর মন থেকে চুরির আতঙ্ক কাটছে না।
আসাদুজ্জামান উজ্জল বলেন, আমার বাড়ি থেকে স্বর্ণলক্ষারসহ নগদ টাকা লোহার গ্রিল কেটে চুরি করে। এখন পর্যন্ত খোয়া যাওয়া মালামাল উদ্ধার হয়নি। ফলে চুরি ঠেকাতে নিজেদেরই রাত জেগে গ্রাম পাহারা দিতে হচ্ছে।
স্থানীয় কাউন্সিলর আব্দুস সামাদ সরকার বলেন, চোরের উপদ্রপ সত্যি বেড়ে গেছে। সতর্কতার জন্য রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন মহল্লাবাসী। তবে মাদকসেবীরাই হয়তো এই চুরির সাথে জড়িত।
বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আব্দুর রহিম বলেন, আমরা ইতোমধ্যে ১০ জন মাদকসেবীকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছি। খোয়া যাওয়া মালামাল উদ্ধারে এবং চোর শনাক্তে জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।