বড়াইগ্রামে ডাকাতকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

আপডেট: নভেম্বর ২০, ২০১৬, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

নাটোর অফিস
নাটোরের বড়াইগ্রাম রোডে ডাকাতির সময় বাইজিদ (৩৫) নামে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের এক সদস্যকে গণপিটু দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে নাটোর-পাবনা  মহাসড়কে কারবালা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। আটককৃত ডাকাত বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার শংকরপুর গ্রামের হাফিজার রহমানের ছেলে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, বড়াইগ্রাম উপজেলার আহম্মেদপুর বাসস্ট্যান্ডের ফজল আড়ৎ এর মালিক ফজল হোসেন কাইমুদ্দিন এবং সঙ্গে থাকা কাইমুদ্দিন ও বাবুলকে নিয়ে ইশ্বরদী থেকে সিএনজি যোগে আহম্মেদপুর ফিরার পথে ৫-৭ জনের ডাকাত দল নাটোর-পাবনা মহাসড়কে কারবালা নামক স্থানে ট্রাক ও মাইক্রোবাস দিয়ে রোড ব্যারিকেট সৃষ্টি করে সিএজিতে ডাকাতি শুরু করে। এসময় সিএজিতে থেকে যাত্রীদের কাছ থেকে প্রায় পঞ্চাশ হাজার নগদ টাকা, মোবাইল ফোন লুট করে নেয় ডাকাত দল। সিএনজির যাত্রীদের আত্মচিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে বাইজিদকে আটক করতে সক্ষম হলেও অন্য ডাকাতরা পালিয়ে পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে ঝলমরিয়া হাইওয়ে ফাঁড়ির ইর্নচাজ হামিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ খবর পেয়েই ফাঁড়ির টহল পুলিশ তাৎক্ষণিক সেখানে যায় এবং বাইজিদ নামে ওই ডাকাতকে আটক করে বড়াইগ্রাম থানায় সোপর্দ করেছে।
বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহরিয়ার খাঁন জানান, এ ঘটনায় ফজল বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম থানায় বাইজিদসহ ৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ৩-৪ জনকে আসামি করে একটি ডাকাতি মামলা দায়ের করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ