বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

বড়াইগ্রামে থ্রি-হুইলার চলাচলের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

আপডেট: November 15, 2019, 12:53 am

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি


নাটোরের বড়াইগ্রামে মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চলাচলের দাবিতে প্রায় এক ঘন্টা নাটোর-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করেছে চালকরা। এতে বনপাড়া বাজার থেকে পাবনা সীমান্তবর্তী নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার রাজাপুর ও পাবনার ঈশ্বরদীর মুলাডুলি বাজার থেকে ঈশ্বরদী গেট পর্যন্ত পণ্যবাহী ট্রাকসহ কয়েক হাজার যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।
গতকার বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত উপজেলার রাজাপুর বাজার এলাকায় কয়েক’শ থ্রি-হুইলার ও ভ্যানের চালক অবস্থান নিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। এসময় দক্ষিণাঞ্চল থেকে নাটোর-রাজশাহী ও নাটোর-বগুড়া রুটে এবং উত্তরাঞ্চল থেকে নাটোর হয়ে কোন গাড়ী দক্ষিণাঞ্চলে প্রবেশ করতে পারেনি।
সকাল ১০টার পর বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশের আশ্বাসে তারা এক ঘন্টার অবরোধ প্রত্যাহার করে। পরে পুলিশ অবরোধকারীদের নিয়ে স্থানীয় গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে আলোচনায় বসে।
অবরোধকারীদের অভিযোগ, নাটোর থেকে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে প্রবেশের একমাত্র রুট নাটোর-পাবনা মহাসড়কে কোন সংযোগ সড়ক বা ফিডার সড়ক নেই। অথচ পাশ্ববর্তী নাটোর-ঢাকা রুটের বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের সঙ্গেই সংযোগ সড়ক (ফিডার রোড) রয়েছে। সেই সড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচল করতে পারলেও দুর্ঘটনা এড়াতে নাটোর-পাবনা মহাসড়কে থ্রি হুইলার চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। এতে তারা প্রায় কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। মহাসড়ক রেখে আঞ্চলিক সড়কে যাত্রী বহন করে দিনান্তে তাদের জমার টাকা উঠে না। তাই সংযোগ সড়ক তৈরির পূর্ব পর্যন্ত মহাসড়কে চলাচলে অনুমতি চান তারা।
বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম জানান, থ্রি- হুইলার চালকরা তাদের বিভিন্ন দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে। আলোচনার আশ্বাসে তারা অবরোধ তুলে নেয়। বর্তমানে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তাদের দাবি সমূহ উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে ঠিক করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ