বড়াইগ্রামে থ্রি-হুইলার চালকদের মহাসড়ক অবরোধ

আপডেট: জুলাই ১৪, ২০১৭, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ণ

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি


নাটোরের বড়াইগ্রামে মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চলাচলে বাধা তুলে নেয়ার দাবিতে প্রায় এক ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে থ্রি-হুইলার, নাসিমন, করিমন ও ভটভটি চালকরা। গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের গড়মাটি এলাকায় পাবনা-নাটোর মহাসড়কে তারা ওই অবরোধ কর্মসূচি পালন করে। এসময় অবরোধকারীদের দুই পাশে শতশত গাড়ি আটকা পড়ে। পরে হাইওয়ে পুলিশ ও থ্রি-হুইলার চালক নেতাদের মধ্যস্থতায় অবরোধ তুলে নেয়া হয়।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবদুস সালাম খান জানান, সকাল ১০টার দিকে হঠাৎ বড়াইগ্রাম ও ঈশ্বরদী এলাকার শতাধিক থ্রি-হুইলার চালক গড়মাটি এলাকায় পাবনা-নাটোর মহাসড়ক অবরোধ করে বসে। তারা মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চলাচল স্বাভাবিক রাখার পক্ষে বিক্ষোভ করতে থাকে। এসময় উভয় পাশে চলাচল গাড়ির জ্যাম বেধে যায়।
বড়াইগ্রাম উপজেলা সিএনজি অটোরিক্সা মালিক সমিতির সভাপতি কেএম জামিল হোসেন বলেন, কোন প্রকার বিকল্প ব্যবস্থা না করে মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চলাচল বন্ধ করা সমিচিন হয় নি। কারণ এই সড়ক ধরেই ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়া থেকে নিয়মিত সিএনজি আনতে হয়। বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের মতো ফিডার সড়ক থাকলেতো আমারা মহাসড়কে উঠাতাম না। আমরা জানি বড় গাড়ি চলতে সমস্যা হয় কিন্তু আমরাও নিরুপায়।
এ বিষয়ে বনপাড়া হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিএম শামসুন নুর বলেন, মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চলাচল বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ রয়েছে। তাই থ্রি-হুইলার চালকদের প্রতি সমবেদনার চাইতে আইনের বাস্তবায়ন করাই জরুরি। কারণ বিজ্ঞ আদালত অনেক বুঝেই রায় দিয়েছেন। আমি থ্রি-হুইলার চালকদের আইনের বিষয়টি বুঝিয়ে বলায় তারা অবরোধ তুলে নেয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ