বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

বড়াইগ্রামে শীতেও চড়া সবজি বাজার

আপডেট: December 8, 2019, 1:06 am

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি


বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া সবজি বাজার-সোনার দেশ

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন বাজারে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে শীতের সবজি। কোন সবজিই ৩০ টাকার নিচে নাই। ফলে সবজি বাজারে গিয়ে অনেকটাই হাপিয়ে উঠছেন নিম্ন আয়ের মানুষ।
গতকাল শনিবার বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া ও জোনাইল বাজার ঘুরে দেখা যায়, পাইকারি ও খুচরা উভয় বাজারে প্রচুর পরিমান শীতের সবজি উঠেছে। তবে সব ধরণের সবজিই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। চড়া দামের কারণে সাধারণ মানুষের পক্ষে এখনো প্রয়োজন মত সবজি কেনা সম্ভব হচ্ছে না। এসব বাজারে ফুল কপি ৫০-৬০ টাকা, করল্লা ৮০-১০০ টাকা, বেগুন ৩০-৪০ টাকা, মুলা ২০-৩০ টাকা, সিম ৪০-৬০ টাকা, ধনে পাতা ৫০-৬০ টাকা, নতুন পেঁয়াজ ২০০-২৪০, পুরাতন পেঁয়াজ ২৪০-২৬০ টাকা, গাজর ৩০-৪০ টাকা, নতুন আলু ৫০-৬০ টাকা, বরবটি ৪০-৫০ টাকা, কাঁচা টমেটো ৪০-৫০ টাকা, পাকা টমেটো ৭০-৮০ টাকা, আদা ১৮০-২০০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০-৫০ টাকা, পালং শাক ৪০-৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে বাঁধা কপি প্রতি পিস ৩০-৪০ টাকা, লাউ ৩০-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
বনপাড়ার ক্রেতা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা উমিরুল ইসলাম, মাদরাসা শিক্ষক হাকিমুর রহমান, পল্লী বিদ্যুৎ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, দিন মজুর আব্দুল লতিফ ও ভ্যান চালক শাহজাহান আলী বলেন, শীতের সময় বাজারে প্রচুর টাটকা সবজি এসেছে। এখন পেট ভরে সবজি খাওয়া দরকার। কিন্তু এতোবেশি দাম যে প্রয়োজনমত কেনাই সম্ভব হচ্ছে না।
সবজি বিক্রেতা আকরাম হোসেন, তয়জাল হোসেন বলেন, সবজির আমদানি বেশি থাকলেও দাম চড়া । ফলে আমাদের বেশি দামে কিনে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে ।
ফুলকপি চাষি কদিমচিলানের আনোয়ার হোসেন বলেন, এবার জমিতে প্রচুর পরিমানে ফুলকপি জন্মেছে বাজারে চাহিদা বেশি থাকায় দাম কমেনি। ফলে আমাদের ভাল মুনাফা হচ্ছে।
উপজেলা বণিক সমিতির সভাপতি ফজলুর রহমান তারেক বলেন, এমনিতেই বাজারের কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। কাঁচা বাজারের ক্ষেত্রে সেটা আরো প্রকট আকার ধারণ করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ