বড়াইগ্রামে ৩ আ’লীগ নেতাকর্মীর বাড়িতে বিষ্ফোরণ

আপডেট: জানুয়ারি ২৯, ২০১৭, ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি


উপজেলার বড়াইগ্রাম পৌলসভার রয়না এলাকায় এক আওয়ামী লীগ নেতা ও দুই কর্মীর বাড়িতে রাতের আধাঁরে বিকট শব্দে বিষ্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটে নি। গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।
পুলিশের দাবি কাঁচের বোতলে পটকা ঢুকিয়ে বিষ্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। রাজনৈতিক বিভেদর কারণে প্রতিপক্ষের লোকেরা আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য এমটা করতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে পৌর সভার নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউনুস আলীর (৪২) বাড়ির বারান্দায় পরপর দুইটি বিকট শব্দে বিষ্ফোরণ ঘটে। ঠিক একই সময় এনএস কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক যুগোল কিশোর ও সত্যজিৎ সরকারের বাড়িতে বিষ্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এছাড়া নিতাই লাহিড়ীর বাড়ির খরের গাদায় আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়। বিষ্ফোরণের শব্দে ওই সকল বাড়ির লোকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে কাঁচের বোতলের ভাঙা অংশ এবং পটকার আলামত সংগ্রহ করে। তবে কারা এ ঘটনা ঘটাতে পারে সে বিষয়ে বাড়ির মালিকরা কিছু বলতে পারে নি।
সত্য সরকারের স্ত্রী সীমা সরকার ও যুগোল কিশোরের ছেলে তমাল জানান, বিকট শব্দে বিষ্ফোরণের পরে তারা আতঙ্কিত হয়ে কান্নাকাটি শুরু করেন। পরে পুলিশ খবর দিলে পুলিশ এসে বাহিরে বের হয়ে কাঁচের ভাঙা বোতল এবং পেট্রোলের গন্ধ পান।
ইউনুস আলীর মেয়ে ইতি খাতুন বলেন, বিস্ফোরণের সময় তার বাবা বাড়ির বাইরে ছিলেন। পরপর দুইটি বিকট শব্দে তাঁরা ঘরের বাইরে গিয়ে দেখেন, বাড়ির প্রধান ফটকে আগুন জ্বলছে। এসময় তারা পানি দিয়ে আগুন নিভিয়ে ফেলেছেন।
এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহরিয়ার খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও আলামত সংগ্রহ করেছে। এ বিষয়ে কেউ থানায় অভিযোগ করে নি।