বড়াইগ্রাম মেয়রের গোডাউনসহ ৬টি প্রতিষ্ঠান থেকে ৫ হাজার লিটার সয়াবিন জব্দ

আপডেট: মে ১২, ২০২২, ১০:০৩ অপরাহ্ণ

 

 

নাটোর প্রতিনিধি:


নাটোরের বড়াইগ্রাম পৌরসভার মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা মাজেদুল বারী নয়নের গোডাউন সহ ৬ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার ৩৫৯ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় অবৈধভাবে তেল মজুদ করে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার অপরাধে ৬ টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ১ লাখ ৯৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বুধবার (১১ মে) বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত নাটোর শহরের কুন্ডু সাহা স্টোর, সোনালী স্টোর, লিটন স্টোর ও নিউ বেঙ্গল ট্রেডার্স এবং বড়াইগ্রাম উপজেলার মৌখড়া বাজারের নয়ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোর ও আল মামুন স্টোরে যৌথ অভিযান চালায় র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নাটোরের সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান তানভীর ও র‌্যাব-৫ এর সদস্যরা ।

র‌্যাব-৫ এর নাটোর অফিস সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার মৌখাড়া বাজারে মেয়র মাজেদুল বারী নয়নের মালিকানাধীন মেসার্স নয়ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে অভিযান চালানো হয়। তার গোডাউন থেকে ৩ হাজার লিটার বোতলজাত ও খোলা সয়াবিন তেল জব্দ করা হয়। অবৈধভাবে সয়াবিন মজুদের অভিযোগে ও বোতলজাত সয়াবিন তেল খোলা সয়াবিন হিসেবে বেশি দামে বিক্রির অপরাধে মেয়রের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

সে সময় পাশের মামুন স্টোরের মালিককে সেবা না দিয়ে তেল মজুদ রাখার একই অপরাধে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও ৯ কার্টুন তেল জব্দ করে খোলা বাজারে বিক্রি করা হয়।

অপরদিকে একই দিন রাতে নাটোর শহরের নিচাবাজার ও স্টেশন বাজারের ৪টি দোকানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় পূর্বের মূল্যে ক্রয় করা সয়াবিন তেল বাড়তি মূল্যে বিক্রয় ও অবৈধ মজুদ রাখায় কুন্ডু সাহা স্টোর থেকে ১০ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ৮ হাজার টাকা জরিমানা, সোনালী স্টোর থেকে ৮৫ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা, মেসার্স লিটন স্টোর থেকে ৫৫ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, স্টেশন বাজারের নিউ বেঙ্গল ট্রেডার্সের গুদাম ও দোকান হতে ২২০০ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরে জব্দ করা সয়াবিন তেল সরকার নির্ধারিত পূর্বের মূল্যে স্থানীয় ব্যক্তিদের মধ্যে বিক্রি করা হয়।