বয়সে নবীন, ওজনে বৃহস্পতির চেয়েও ভারী! নতুন ‘শিশু’ গ্রহের সন্ধান পেয়ে উচ্ছ্বসিত বিজ্ঞানীরা

আপডেট: অক্টোবর ২৭, ২০২১, ৬:৫১ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


বয়স তার কয়েক কোটি বছর। কিন্তু তবুও সে ‘শিশু’। কেননা এটি একটি গ্রহ। এখনও পর্যন্ত মানুষ যত গ্রহের সন্ধান মিলেছে, তাদের মধ্যে অন্যতম কনিষ্ঠ এই গ্রহ। হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক সন্ধান পেলেন এমনই এক গ্রহের। মনে করা হচ্ছে, গ্রহের জন্ম ও ক্রমবিবর্তনের ধারাটিকে আরও ভাল করে বুঝতে সাহায্য করবে এই নব্য আবিষ্কৃত গ্রহ।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, বয়সে কার্যত সদ্যোজাত হলেও গ্রহটি বৃহস্পতির চেয়েও ভারী। কয়েক কোটি বছর আগে তার জন্ম। কিন্তু গ্রহ হিসেবে সে অত্যন্তই নবীন। এতটাই অল্পবয়সি ২গ০৪৩৭ন নামের গ্রহটি যে সৃষ্টির সময়কার উত্তাপ এখনও রয়েছে তার শরীরে। গবেষক দলের অন্যতম এরিক গাইডোস জানিয়েছেন, ”গ্রহটি থেকে যে আলো প্রতিফলিত হচ্ছে, তা পর্যবেক্ষণ করলে আমরা এটির গঠনগত উপাদান সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারব।”

টেলিস্কোপে ধরা পড়েছে শিশু গ্রহটির উজ্জ্বল আলো।
রয়্যাল অ্যাস্ট্রনমিক্যাল সোসাইটির জার্নালে প্রকাশিত হতে চলেছে এই সংক্রান্ত গবেষণাপত্রটি। যদিও গ্রহটি আবিষ্কার হয়েছিল ২০১৮ সালে। তারপর থেকেই নিয়মিত সেটিকে পর্যবেক্ষণে রেখেছিলেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

কোথায় অবস্থিত গ্রহটি? গবেষকরা জানাচ্ছেন, ওই গ্রহটি ও তার ‘অভিভাবক’ নক্ষত্রটি তারাদের এক ‘নার্সারি’তে অবস্থিত। আণবিক মেঘে আবৃত সেই অঞ্চলটির নাম টরাস।
দেখা গিয়েছে, সৌর জগতের গ্রহগুলির তুলনায় এই নক্ষত্রম-লীর গ্রহগুলির কক্ষপথ অনেক বড়। এই মুহূর্তে গ্রহটিকে পৃথিবী থেকে সহজেই দেখা যাচ্ছে। প্রধানত হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জ থেকে খালি চোখেই ২গ০৪৩৭ন ও ওই অঞ্চলের অন্যান্য গ্রহগুলিকে ভোরের ঠিক আগে হাওয়াইয়ের আকাশে খালি চোখেই দেখা যায়। যদিও গ্রহগুলি চক্কর কাটছে যে নক্ষত্রটিকে, সেটি অত্যন্ত ঝাপসা লাগে খালি চোখে।

[আরও পড়ুন: গলছে মেরুর বরফ, থাবা বসাতে পারে অজানা রোগজীবাণু, আশঙ্কা পরিবেশবিদদের]

সম্প্রতি ছায়াপথের বাইরে এম৫১ গ্যালাক্সির মধ্যে একটি গ্রহের সন্ধান পেয়েছে নাসা। গ্রহটি প্রায় ২.৮ কোটি আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। সেটি পাক খাচ্ছে একটি ব্ল্যাকহোলের চারপাশে। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, গ্রহটির সঙ্গে মিল রয়েছে শনিগ্রহের। এই আবিষ্কার ঘিরেও উত্তেজিত বিজ্ঞানীরা।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ