ভবিষ্যতে বড় কাজের উৎসাহ দেবে পদ্মা সেতু: সেনা প্রধান

আপডেট: জুন ২৫, ২০২২, ১২:৫৩ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


স্বপ্নের পদ্মা সেতু ভবিষ্যতে আরও বড় বড় কাজ করতে উৎসাহ দেবে বলে মন্তব্য করেছেন সেনা প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ।
শনিবার (২৫ জুন) মাওয়া প্রান্তে সুধী সমাবেশস্থলে আসার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সেনাপ্রধান বলেন, ভবিষ্যতে আরও বড় বড় কাজ করতে উৎসাহ দেবে বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি। আমি একজন বাংলাদেশি হিসেবে সত্যিই আজকে গর্বিত। এমন একটা অর্জন সশরীরে দেখে যেতে পারলাম। এটা আল্লাহর বিশেষ রহমত বলে মনে করি।

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সুধী সমাবেশে অংশ নিয়েছেন দেশি বিদেশি কয়েক হাজার আমন্ত্রিত অতিথি।
টোল প্রদান করে প্রধানমন্ত্রী মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-১ উন্মোচন করবেন। উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্ত থেকে পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে যাবেন। জাজিরা প্রান্তে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী ফলক এবং ম্যুরাল-২ উন্মোচন করবেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্ত থেকে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠাল বাড়িতে যাবেন। সেখানে তিনি আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগ দেবেন। আওয়ামী লীগ এ জনসভায় ১০ লাখ লোক জমায়েত করার ঘোষণা দিয়েছে।

জনসভায় যোগদান শেষে জাজিরা প্রান্তের সার্ভিস এরিয়া-২ তে যাবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তিনি হেলিকপ্টারে ঢাকায় ফিরে আসবেন।
প্রসঙ্গত, পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা। এ সেতুর দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার।

গুরুত্বপূর্ণ এ সেতু রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য বড় শহরের সঙ্গে দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার সড়ক এবং রেল যোগাযোগ স্থাপন করবে। বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ থেকে শুরু করে নানা কারণে ব্যাপক আলোচিত এ সেতু বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহের মধ্যে দিয়ে আজ বাস্তবায়ন হলো।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ