ভারতকে ৫-০ তে হারালেও বিশ্বকাপ নিশ্চিত নয় উইন্ডিজের!

আপডেট: জুন ২৩, ২০১৭, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


আগামী বছর বিশ্বকাপ বাছাই পর্বটা বাংলাদেশেই হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বাংলাদেশের বিশ্বকাপ যেহেতু প্রায় নিশ্চিত, ভেন্যুও তাই বদলে যাচ্ছে। সেটা আয়ারল্যান্ড-স্কটল্যান্ডে হওয়ার কথা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অবশ্য প্রস্তাব দিতে পারে, ২০১৮ সালের জুলাই-আগস্টে অনুষ্ঠেয় সেই বাছাই পর্ব তাদের ওখানেই হোক। যে যুক্তিতে বাংলাদেশকে সম্ভাব্য স্বাগতিক ভেবেছিল আইসিসি, সেটা তো এখন ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই প্রাপ্য!
দুইবারের বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নদের ক্রিকেটের এই বৈশ্বিক আসরে খেলার সম্ভাবনা আসলে এখন পুরোটাই নির্ভর করছে বাছাই পর্বের ওপর। যা হিসাব মিলছে, তাতে সরাসরি তাদের বিশ্বকাপে যাওয়ার সুযোগ নেই। এমনকি ভারতের সঙ্গে আগামী সিরিজটা ৫-০ ব্যবধানে জিতলেও হবে না! এই আশা করতে হবে, শ্রীলঙ্কা যেন নিজেদের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজটা অন্তত ৩-২ ব্যবধানে হারে।
৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের কোনো ওয়ানডে ম্যাচ নেই। ফলে তাদের পয়েন্ট হারানোর সম্ভাবনাও নেই। বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মূল লড়াই এখন অবশ্য আটে থাকা শ্রীলঙ্কার সঙ্গে। শ্রীলঙ্কা জুনের শেষ থেকে জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫ ওয়ানডের সিরিজ খেলবে। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত সিরিজ শুরু হচ্ছে ২৩ জুন, অর্থাৎ আজ।
এই সিরিজে ভারতকে যদি হোয়াইটওয়াশ করতে পারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, তাদের ১১ রেটিং পয়েন্ট বাড়বে। হবে ৮৮। শ্রীলঙ্কা যদি ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ হারে, তাদেরও রেটিং পয়েন্ট হবে ৮৮। তবে ভগ্নাংশের ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় আট নম্বর জায়গাটি থাকবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে।
কিন্তু শ্রীলঙ্কা কি জিম্বাবুয়ের কাছে নিজেদের মাটিতে ৩-২ ব্যবধানে হারার দল? তার চেয়েও বড় প্রশ্ন, কোহলির দল কি ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হোয়াইটওয়াশ হবে?
ওয়েস্ট ইন্ডিজের তাই বাছাই পর্ব খেলার প্রস্তুতি এখন থেকেই নেওয়া ভালো। সবচেয়ে ভালো হয়, বাছাই পর্বটা নিজ দেশে আয়োজনের দেনদরবার আইসিসির সঙ্গে করা। তাতে অন্তত স্বাগতিক হওয়ার সুবিধা তারা পাবে। দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা এতটুকু দাবি তো করতেই পারে। বাছাই পর্বও যে সহজ হবে, তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। আফগানিস্তান, আয়ারল্যান্ড, জিম্বাবুয়েও তো লড়বে শেষ দুটি জায়গার জন্য। ২০১৯ বিশ্বকাপ যে হবে মাত্র ১০ দলের!-প্রথম আলো অনলাইন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ