ভারতের নতুন বিপদ ‘হরকত ৩১৩’ জেহাদি গোষ্ঠী! কাশ্মীরে বুনছে নাশকতার জাল

আপডেট: অক্টোবর ১৭, ২০২১, ৮:৫১ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


গত দু’সপ্তাহ ধরে উত্তপ্ত কাশ্মীর। রক্ত ঝরছে আমজনতার। শহিদ হচ্ছেন সেনা জওয়ানরা। প্রাথমিকভাবে গোয়েন্দাদের ধারণা ছিল, পাক সীমান্ত পেরিয়ে জইশ-ই মহম্মদ কিংবা লস্কর-ই-তইবার জঙ্গিরা হামলা চালাচ্ছে ভূস্বর্গে। কিন্তু একটু খোঁজখবর করতেই ভারতীয় গোয়েন্দাদের চক্ষুচড়কগাছ। জইশ, লস্করদের পাশাপাশি সীমান্তে ওঁত পেতেছে ‘হরকত-৩১৩’ জঙ্গি গোষ্ঠী। তারাই বিদেশি জঙ্গি ঢোকাচ্ছে এদেশে। কাশ্মীরে অনুপ্রবেশের ইতিহাসে একেবারে আনকোরা নাম এই ‘হরকত-৩১৩’।

কী এই ‘হরকত ৩১৩’?
১৯৯৯ সালে ইলিয়াস কস্তুরির হাত ধরে জন্ম নিয়েছিল এই ‘এলিট’ ব্রিগেড। সেই সময় পাকিস্তান ও পাক অধিকৃত কাশ্মীরেই সক্রিয় ছিল এই গোষ্ঠী। কাজ করত মূলত আল কায়দার হয়ে। বর্তমানে পাক সেনা, আইএসআই এবং তালিবানের হাক্কানি নেটওয়ার্কের মদতেই খোলনলচে বদলাচ্ছে এই ‘৩১৩ ব্রিগেড’। শীতের আগেই কাশ্মীরে জেহাদি ঢোকাচ্ছে এই গোষ্ঠী।

প্রসঙ্গত, ইসলাম ধর্মের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে এই ৩১৩ সংখ্যাটি। আলবদরের যুদ্ধে মহম্মদের সঙ্গী ছিলেন ৩১৩ জন। সেই সূত্র ধরেই জঙ্গি গোষ্ঠীর অভিজাত বা অত্যাধুনিক সংগঠনকে এই সংখ্যা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়। বর্তমানে তালিবানের সবচেয়ে এলিট শাখা ‘বদরি ৩১৩’। যারা কাবুল শহর এবং বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে। এই ব্রিগেডের ধাঁচেই পুনর্জন্ম হচ্ছে ‘হরকত ৩১৩’-এর।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ